এবি ডি ভিলিয়ার্স, ছবিঃসংগৃহীত।

অবসর ভেঙ্গে খেলায় ফিরছেন ডি ভিলিয়ার্স

সিডনি, ১৪ জানুয়ারি, ২০২০ : অবসর ভেঙ্গে খেলায় ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন আধুনিক ক্রিকেট গ্রেট দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপ খেলার ইচ্ছে পোষণ করেছেন তিনি।

২০২৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষনা দিয়েছিলন ডি ভিলিয়ার্স। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ২০২৯ ওয়ান বিশ্বকাপের কিছু দিন আগে তার এ অবসর ঘোষণায় অনেকেই ভ্রæ কুচকেছিলেন।

‘মি: ৩৬০ ডিগ্রি’ হিসেবে খ্যাত প্রোটিয়া দলের সাবেক এ ব্যাটসম্যান বলেন অবসর ভেঙ্গে পুনরায় তিনি খেলায় ফেরার ঘোষনা দিচ্ছেন এবং অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপে খেলতে চান।

বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-২০ টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ লীগে (বিবিএল) ব্রিজবেন হিটসের হয়ে খেলা ডি ভিলিয়ার্স ক্রিকেট ডট কম ডট এইউকে বলেন, ‘দেশে আমি দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ মার্ক বাউচার, ক্রিকেট ডিরেক্টর গ্রায়েম স্মিথ এবং অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের সঙ্গে কথা বলেছি। সকলেই চায় এমনটা ঘটুক। এটা বাস্তবায়ন করার আগে অনেক কিছু করা দরকার আছে।’

অবসর ভেঙ্গে গত বছর আগ মুহূর্তে ডি ভিলিয়ার্স ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট কর্তপক্ষ তাতে সাড়া দেয়নি বলে খবর বেড়িয়েছিল। ডি ভিলিয়ার্সকে দলে না রাখাটা মোটেই প্রোটিয়াদের জন্য সুখকর হয়নি। সাদামাটা পারফরমেন্সের কারণে গ্রæপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

তবে এখন দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড ও ব্যাকরুম স্টাফে পরিবর্তন আসায় ডি ভিলিয়ার্সের মনের পরিবর্তন হয়েছে।

ডি ভিলিয়ার্স বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে এখন অনেক সাবেক খেলোয়াড় যুক্ত হয়েছেন, যারা এক সময় দলের হয়ে খেলেছেন।

এমন সব ব্যক্তি এসেছেন যারা খেলাটি বোঝেন, দলকে বহু বছর নেতৃত্ব দিয়েছেন। সুতরাং অতীতে তাদের সঙ্গে একত্রে খেলার কারণে যোগাযোগ স্থাপনটা অনেক বেশি সহজ। বিশেষ করে ১৫ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন- এমন খেলোয়াড়দের তারা ভালভাবে বুঝতে পারেন। ’

দক্ষিণ আফ্রিকা কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর মার্ক বাউচার বলেছিলেন ডি ভিলিয়ার্সকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরানোর ধারণার সঙ্গে তিনি একমত এবং বিশ্বকাপের জন্য তিনি ‘সেরা’ খেলোয়াড়দের দলে চেয়েছিলেন।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *