যোসেফ ,ছবি : সংগৃহীত।

আইপিএল এ দুর্দান্ত অভিষেক হলো পেসার জোসেফের

 ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) স্বপ্নের মত এক অভিষেক হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেসার আলজারি জোসেফের। অভিষেক ম্যাচেই গতকাল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে মাত্র ১২ রানে ৬ উইকেট শিকার করে টুর্নামেন্ট ইতিহাসে সেরা বোলিং ফিগারের মালিক হন জোসেফ।

ইনজুরিতে থাকা নিউজিল্যান্ডের এডাম মিলনের পরিবর্তে মুম্বাই দলে যোগ দেয়া ২২ বছর বয়সী এ উঠতি তারকার বোলিং নৈপুণ্যে স্বাগতিক সানরাইজার্স হায়দারাবাদকে ৪০ রানে হারায় সফরকারীরা। ৩ দশমিক ৪ ওভার বোলিং করে একটি মেডেনসহ ১২ রানে ৬ উইকেট শিকার করেন জোসেফ।

জোসেফের এমন কৃত্বিতে ইতোপূর্বে টুর্নামেন্টের সেরা বোলিং ২০০৮ উদ্বোধনী আসরে রাজস্থান রয়্যালসের পাকিস্তানী খেলোয়াড় সোহেল তানভিরের রেকর্ড পিছনে পড়ে যায়।

২০১৬ সালে টেস্ট অভিষেক হয় দীর্ঘ দেহি পেসার জোসেফের। সম্প্রতি নিজ মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জয় করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ হয়ে এক ম্যাচে ১০ উইকেট শিকার করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন তিনি।

জোসেফ বলেন, ‘স্বপ্নের মত একটা শুরু, এর চেয়ে ভাল আর কিছু হতে পারেনা। আমি কেবলমাত্র পরিকল্পনামত বল করতে চেয়েছিলাম। টিম ম্যানেজমেন্ট যখন জানালো আমি খেলছি, আমি একদম স্বাভাবিক থাকার সিদ্ধান্ত নিলাম এবং নিজকে প্রস্তুত করলাম।’

‘প্রথম উইকেট পাওয়ার পর আমি উদযাপন না করার সিদ্ধান্ত নিলাম এবং তারপর থেকে ম্যাচ জয়ের প্রতি নজর দিলাম। ছেলেরা সত্যিকারার্থেই ভাল খেলছে, অনেক কঠোর পরিশ্রম করছে। মাঠে আমাদের সবারই এমনটা করা দরকার ছিল এবং তাদেরকে দেখালাম আমরা কি করতে পারি।’

জয়ের জন্য ১৩৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৭ দশমিক ৪ ওভারে মাত্র ৯৬ রানে গুটিয়ে যায় হায়দারাবাদ। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২০ রান করেন দিপক হুদা।

নিজের প্রথম বলেই ফর্মে থাকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে(১৫) আউট করেন জোসেফ। ওয়ার্নারের সঙ্গী ইংল্যান্ডের জনি বেয়ারস্টো ১৬ রানে আউট হন রাহুল চাহারের বলে।

আগে ব্যাটিং করতে নেমে ৯৭ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর মুম্বাইকে টেনে তোলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরন পোলার্ড। মাত্র ২৬ বলে পোলার্ডের অপরাজিত ৪৬ রানের সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩৬ রান করে মুম্বাই।

পোলার্ডের দু’টি বাউন্ডারি ও চারটি ওভার বাউন্ডারিতে শেষ দুই ওভারে ৩৯ রান পায় মুম্বাই।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *