গ্রেগ বার্কলে , ছবিঃসংগৃহীত।

আইসিসির নতুন চেয়ারম্যান নিউজিল্যান্ডের বার্কলে

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নিউজিল্যান্ডের গ্রেগ বার্কলে। পেশায় আইনজীবি হলেও ২০১২ সাল থেকে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হিসেবে জড়িত ছিলেন তিনি। পরবর্তীতে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানের দায়িত্বও পান বার্কলে।

শশাঙ্ক মনোহরের পর আইসিসির দ্বিতীয় স্বাধীন চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করবেন বার্কলে। এজন্য নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিতে হবে তাকে।

আইসিসির চেয়ারম্যান নির্বাচনে বার্কলের প্রতিন্দ্বন্দি ছিলেন পাকিস্তানের ইমরান খাজা। মনোহরের পদত্যাগের পর অন্তবর্তী চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি।

নিয়ম অনুযায়ী জিততে হলে ১৬ ভোটের অন্তত দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পেতে হবে প্রার্থীকে। প্রথম দফায় ১০-৬ ভোটে খাজাকে হারান বার্কলে। কিন্তু এই জয় চেয়ারম্যান হবার জন্য যথেষ্ট ছিলো না। ফলে আবারো ভোট হয়।

দ্বিতীয় দফায় দক্ষিণ আফ্রিকার ভোট পেয়ে আইসিসি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন বার্কলে। আইসিসির দায়িত্ব পাওয়াটা বড় সম্মানের বলে জানান তিনি। বার্কলে বলেন, ‘আইসিসির চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়া নেক বড় সম্মানের। আমি আইসিসির সম্মানিত ডিরেক্টরদের ধন্যবাদ দিতে চাই, তাদের সমর্থনের জন্য। আশা করি আমরা সবাই মিলে খেলাটাকে এই মহামারির মধ্যেও এগিয়ে নিয়ে একটা শক্ত অবস্থানে নিতে পারবো।’

আইসিসির সদস্য সব দেশের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করার আশ্বাস দিয়েছেন বার্কলে, ‘আমি খেলাটাকে আরও শক্তিশালি করতে আমাদের মূল বাজার এবং একই সঙ্গে এটা বৃদ্ধি করার জন্য একত্রে কাজ করার দিকে তাকিয়ে আছি। আমি আমার দায়িত্বটাকে খুব গুরুত্ব সহকারে নিচ্ছি। আইসিসির ১০৪টি দেশের পক্ষে কাজ করে খেলাটার নিশ্চিত ভবিষ্যৎ তৈরিতে কাজ করবো।’

২০১৫ সালে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের অন্যতম পরিচালক ছিলেন বার্কলে। নির্বাচনে পরাজিত হওয়া খাজাকে ধন্যবাদ দিয়ে তিনি বলেন, ‘অন্তবর্তীকালীন চেয়ারম্যান হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করায় খাজাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। খেলাটির কঠিন সময়ে শক্ত হাতে হাল ধরেছেন তিনি। ভবিষ্যতেও তার সাথে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে কাজ করে যাবো।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *