ছবি: ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি).

আগস্টের আগে কোন ঘরোয়া ক্রিকেট নয় : ইসিবি

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে নিজ মাটিতে ঘরোয়া ক্রিকেটে স্থগিতাদেশ বাড়ালো ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।আগামী ১ অগাস্ট পর্যন্ত ঘরোয়া সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে ইসিবি।

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

এই নিয়ে তৃতীয়বারের মত স্থগিতাদেশ বাড়ালো ইসিবি। করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর ২৮ মে পর্যন্ত এবং পরবর্তীতে ১ জুলাই পর্যন্ত ইংল্যান্ডে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলো ইসিবি। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায়, স্থগিতাদেশ এক মাস বাড়িয়ে আগস্ট করলো ইসিবি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ স্থগিত করেছিলো ইসিবি। তবে তারা আশাবাদি জুলাইয়ে সিরিজটি হবে।
বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ইসিবি জানায়, এই গ্রীষ্মের শেষ দিকে ছেলে ও মেয়েদের ঘরোয়া ক্রিকেট আয়োজনের ব্যাপারে আশাবাদী।

ঘরোয়া আসর পুনরায় জুনে শুরুর জন্য ইসিবির কাছে প্রস্তাব রদবে ক্রিকেটারদের পেশাদার গ্রুপ (পিজিজি)। তাই ইসিবির প্রধান নির্বাহি টম হ্যারিসন জানান, ‘স্বাভাবিকভাবেই আমরা প্রতিটি স্তরে খেলা দেখতে চাই। আমরা এই মৌসুমে ঘরোয়া ও বিনোদনমূলক ক্রিকেট দেখার ব্যাপারে আশাবাদি এবং ঘরোয়া ক্রিকেট শুরুর ব্যাপারে পিজিজির সাথে পরিকল্পনা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যদিও আমাদের ঐতিহ্যগত ফরম্যাটগুলো সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পাচ্ছে। খেলোয়াড়দের মাঠে ফেরানো নিশ্চিত করতে আমরা অপ্রথাবিরোধি অন্বেষনের বিপক্ষে নই। সবকিছু নিরাপদ হবার পরই তা হতে পারে, এই সঙ্কটের পুরো সময়ই আমরা বলেছি, সুরক্ষাই আসল এবং খেলার সাথে জড়িত সকলকে নিরাপদ রাখাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য।’

এদিকে, করোনাভাইরাসের কারনে ইতোমধ্যে একশ বলের টুর্নামেন্ট ‘দ্য হানড্রেড’ এক বছর পিছিয়ে গেছে। যা হবে ২০২১ সালে।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *