মাশরাফি বিন মর্তুজা, ছবি: সংগৃহীত।

আগামীকাল এলিমিনেটরে খেলতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ মাশরাফি

ঢাকা, ১২ জানুয়ারি ২০২০  : গতরাতে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে লিগ পর্বের ৪২তম ও শেষ ম্যাচে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে ফিল্ডিং-এর সময় ক্যাচ নিতে গিয়ে বাঁ হাতের তালুতে ব্যাথা পান ঢাকা প্লাটুনের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ব্যাথা পাবার সাথে সাথেই হাতে রক্ত নিয়ে মাঠ ছাড়েন ম্যাশ। এরপর চিকিৎসকরা তার তালুতে ১৪টি সেলাই দিয়েছেন। এতে আগামীকাল এলিমিনেটরে মাশরাফির খেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। কিন্তু সেই অনিশ্চিয়তাকে এক নিমেষেই উড়িয়ে দিয়েছেন মাশরাফি। এলিমিনেটরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে খেলবেন ঢাকার অধিনায়ক মাশরাফি।

তালুতে সেলাইয়ের পরও এলিমিনেটরে মাশরাফি খেলতে চাওয়ার বিষয়টি আজ আজ সকালে জানান ঢাকার ম্যানেজার আহসানউল্লাহ হাসান। তিনি বলেন, ‘তিনি খেলতে ভীষণ ইচ্ছুক। অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গেই তিনি বলেছেন ‘আমি খেলবো’। আমরা বুঝতে পারছি না কী করব। এখন বিষয়টি তার ওপর ছেড়ে দিয়েছি।’

সাধারনত এমন ইনজুরিতে সুস্থ হতে সাত দিনের বেশি সময় লেগে যায়। কিন্তু মাশরাফি খেলতে চাইলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসকরা বিকল্প ব্যবস্থা করে দিবে। এ ব্যাপারে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরি বলেন, ‘যেহেতু সেলাই পড়েছে সেরে উঠতে সাত দিনের বেশি লাগে। অনেক সময় ঝুঁকি নিয়েও খেলা যায়। কিন্তু আমরা চাইব, সে (মাশরাফি) আগামী তিন দিন বিশ্রামে থাকুক। তারপরও ম্যাচের গুরুত্ব বিবেচনা করে, সে যদি খেলতে চায় তবে খেলার ব্যবস্থা করে দিবো।’

গতরাতে খুলনার ব্যাটিং ইনিংসের ১১তম ওভারে ঢাকার স্পিনার মেহেদি হাসানের একটি ডেলিভারি ব্যাট হাতে সজোরে কভার দিয়ে মারেন দক্ষিণ আফ্রিকার রাইলি রুশো। কভারে দাঁড়িয়ে থাকা মাশরাফি বাম-দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ক্যাচটি নেয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বলটি তালুবন্দি করতে পারেননি ম্যাশ। তবে বলের আঘাতে তার তালু ফেটে গেলে হাতের তালু দিয়ে রক্ত ঝড়ে। এরপর দলের ফিজিও মাশরাফিকে নিয়ে মাঠ ছাড়েন।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *