ছবি :বঙ্গবন্ধু টি -২০ কাপ ক্রিকেট।

আগামী নভেম্বরে শুরু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ’

আগামী নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আয়োজিত টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট ‘বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি কাপ’ নামে নামকরণ করা হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এ টুর্নামেন্টের নামকরণ করা হয়েছে।

নভেম্বর-ডিসেম্বরে নির্ধারিত এই টুর্নামেন্টে পাঁচটি দলের জন্য নামী-দামী ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান-সংস্থা-দল-এজেন্সি-কনসোর্টিয়াম এবং ব্যক্তিদের কাছ থেকে এক্সপ্রেশন অফ ইন্টারেস্টের (ইওআই) আমন্ত্রণ জানিয়েছে বিসিবি।

ইওআই সম্পর্কিত বিস্তারিত নথি (জেনারেল গাইডলাইন) বিসিবি ম্যানেজমেন্ট অফিসে ও বিসিবির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.tigercricket.com.bd –এ পাওয়া যাবে। স্পন্সরের জন্য বিসিবি ইতোমধ্যেই বিজ্ঞান দিয়েছে।

বিসিবির দেয়া বিজ্ঞাপনে জানানো হয়- ১ নভেম্বরের মধ্যে ব্যবসায়িক সময় শেষ হবার আগে হাতে বা কুরিয়ারের মাধ্যমে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিসিবির ব্যবস্থাপনা অফিসে জমা দিতে হবে ইওআইকে।

কোন কিছু নির্ধারণ ছাড়াই যে কোন প্রস্তাব গ্রহণ বা প্রত্যাখ্যান করার অধিকার রাখে বিসিবি। ইওআই প্রক্রিয়া বাতিল এবং ইওআই জমা দেয়ার আগে যে কোনও সময় সংযোজন জারি করে নথির শর্তাদি সংশোধন ও যুক্ত বা পরিবর্তন করার অধিকার রাখে বিসিবি।

ক্রিকেটকে মাঠে ফিরিয়ে আনতে টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিসিবি’র উদ্যোগের আরও একটি অংশ। এর আগে বিসিবি তিন দলের একটি ওয়ানডে টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছে। যেটির নাম ছিলো, বিসিবি প্রেসিডেন্ট কাপ। যেখানে তিন দল অংশ নিয়েছিলো।

নাজমুল একাদশকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছিলো মাহমুদুল্লাহ একাদশ। টুর্নামেন্টের অন্য দল ছিলো, তামিম ইকবালের নেতৃত্বাধীন তামিম একাদশ।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পান জানান, বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ সফলভাবে শেষ করার পর ক্রিকেটকে আরও বড় আকারে ফিরিয়ে আনার চ্যালেঞ্জ নিতে আমরা প্রস্তুত।

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের পুরস্কার বিতরনী শেষে পাপন বলেছিলেন, ‘এখন আমরা টি-২০ টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চাই। এর আগে তিন দলকে নিয়ে ওয়ানডে টুর্নামেন্ট হয়েছিলো। এখন পাঁচ দলকে নিয়ে টি-২০ টুর্নামেন্ট হবে। এটি আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা কঠিন হবে কিন্তু আমরা চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করছি এবং আশা করছি, ১৫ নভেম্বর থেকে টুর্নামেন্টটি শুরু হবে। আমরা পরে বিস্তারিত জানাবো। পাঁচটি দলের স্পন্সর হবার জন্য আমরা আগ্রহ প্রকাশ করবো। আমরা এটি নিয়ম অনুসারে ঠিক করবো।’

বিসিবি আগেই বলেছে, কভোডি-১৯এর কারনে এ বছর কোন বিপিএল হবে না, এটি দেশের একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট।

দেশজুড়ে টি-টুয়েন্টি প্রতিযোগিতা এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বৃহত আকারে ফিরিয়ে আনার আগে এটি পরিকল্পনার দ্বিতীয় অংশ হবে।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *