জেমস এন্ডারসন ,ছবিঃ সংগৃহীত।

ইনজুরির কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ শেষ এন্ডারসনের

লন্ডন, ৯ জানুয়ারি ২০২০  : পাঁজরের ইনজুরিতে পড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে শেষ দু’টি টেস্ট থেকে ছিটকে পড়লেন ইংল্যান্ড পেসার জেমস এন্ডারসন। কেপ টাউনে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে নাটকীয় জয়ের দিন ইনজুরিতে পড়েছেন তিনি।

স্বাগতিক প্রোটিয়াদের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওই টেস্টের শেষ দিনেই সমস্যার মুখে পড়েন এন্ডারসন। বুধবার এমআরআই স্ক্যান করানোর পর তার চোটের বিষয়টি নিশ্চিত হয়। ফলে চলতি সফরে আর দলের হয়ে মাঠে নামার সুযোগ নেই ইংলিশ পেসারের।

সর্বশেষ এ্যাশেজ সিরিজে অংশগ্রহনের সময় কাফ ইনজুরির কবলে পড়ে মাঠ ছেড়েছিলেন এন্ডারসন। এরপর মাঠে ফিরে মাত্র দুটি টেস্ট খেলেই ফের ইনজুরিতে পড়লেন ৩৭ বছর বয়সি এই বোলার।

ফিটনেস ফিরে পেতে দীর্ঘ পাঁচ মাস কাজ করেছেন ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেট শিকারী এন্ডারসন। ১৮৯ রানে ইংল্যান্ডকে জয়ী করে সিরিজে সমতা ফেরানোর ম্যাচে সাত উইকেট নিয়ে সেরা ফর্মে ফেরারও জানান দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয় টেস্টের শেষ দিনে ফের সমস্যায় পড়েন এন্ডারসন। চা পানের বিরতির পর দুই ওভার বল করার সময় তিনি ব্যাথাতুর হয়ে পড়েন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইংল্যান্ড ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইসিবি জানায়, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের বাকী টেস্টের দল থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন জেমস এন্ডারসন। নিউল্যান্ডে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টের পরপর তার পাঁজরের ইনজুরির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সকালের সেশন শেষ হবার পর থেকেই তাকে অসুস্থ মনে হচ্ছিল। তিনি সঠিকভাবে খেলতে পারছিলেন না। এ দিন তিনি মাত্র আট ওভার বল করতে পেরেছেন। খুব শিগগিরই ইংল্যান্ডে ফিরে যাবেন তিনি।’

এক টুইট বার্তায় এন্ডারসন বলেন, ‘ভাঙ্গা পাঁজর নিয়ে সিরিজের বাকী টেস্টে খেলতে না পেরে আমি হতাশ। তবে আশা করছি কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ফিরতে পারব।’

ব্যক্তিগত সংগ্রহশালায় ৫৮৪ উইকেট পুরে নিয়ে এন্ডারসন নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন টেস্ট ইতিহাসের সেরা সিমার হিসেবে। সেঞ্চুরিয়ানে বক্সিং ডে টেস্টে অংশগ্রহনের মাধ্যমে তিনি নবম ক্রিকেটার হিসেবে ১৫০ টি টেস্ট খেলার মাইল ফলকে পা রাখেন।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *