ভারত বনাম আফগানিস্তান ম্যাচ

ইনজুরি আক্রান্ত, অপ্রতিরোধ্য ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে দুর্বল আফগানিস্তান

লন্ডন, ২১ জুন, ২০১৯ : আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ২৮তম ও দিনের প্রথম ম্যাচে শনিবার মুখোমুখি হচ্ছে ইনজুরি আক্রান্ত ভারত ও পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকা দুর্বল আফগানিস্তান।

সাউদাম্পটনের রোজ বোল-এ অনুষ্ঠিতব্য এ ম্যাচে সবার চোথ থাকবে ভারতীয় দলে ঋষভ পন্থের অন্তর্ভুক্তি। মূল দলে না থাকলেও রিজার্ভ ছিলেন এ তারকা ক্রিকেটার। কিন্তু নিয়মিত ওপেনার শিখর ধাওয়ানের ইনজুরিতে তিনি সুযোগ পান এবং দলের ব্যাটিং লাইন আপে আরো শক্তি যোগাতে পারেন। পক্ষান্তরে শেষ মুহুর্তে আসগর আফগানকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিতে প্রধান নির্বাচক দৌলত আহমদজাই মূল ভূমিকা পালন করেছেন এবং এতে বিশ্বকাপে দলে প্রস্তুতিতে প্রভাব ফেলেছে বলে টুইট করেছেন কোচ ফিল সিমন্সের টুইটের পর এখন পর্যন্ত কোন ম্যাচে জয় না পাওয়া পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকা আফগানিস্তানকে অনেক সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে।

মাঠের ভিতরে-বাইরের দুর্বল সিদ্ধান্ত আফগানিস্তানের যাত্রা যেমন বিতর্কিত করেছে তেমনি দিনের পর দিন আরো খারাপ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। এমন অস্থায় বাদেরকে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে মোকাবেলা করতে হচ্ছে।

বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দলটি টুর্নামেন্টে এখনো অপরাজিত আছে। শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিযা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে একতরফাভাবে জয় পেয়েছে ২০১১ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নরা।

তারা এতটাই একক প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছেন যে, এমনকি সিনিয়র ওপেনার ধাওয়ান, ফাস্ট বোরার ভুবনেশ্বর কুমার ও অলরাউন্ডার বিজয় শংকরের ইনজুরি সত্বেও শীর্ষ দলগুলোর বিপক্ষে পারফরমেন্সে কোন প্রভাব ফেরতে পারেনি।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ জয়ী সেঞ্চুরির পর আঙ্গুলে চির ধরায় ধাওয়ানকে হারানোটা শুরুতে ভারতীয় দলের জন্য বড় ধাক্কা মনে করা হয়েছিল। তবে পাকিস্তান ম্যাচে মোহাম্মদ আমিরের বিধ্বংসী বোলিংয়ের বিরুদ্ধে কে এল রাহুলের হাফ সেঞ্চুরি সব সন্দেহ দূর করে দিয়েছে।
দুর্দান্ত ফর্মে আছেন রোহিত শর্মা। বিশ্ব ক্রিকেটের তারকা বোলার হলেও মোটেই ফর্মে নেই রাশিদ খান। তাই আফগানিস্তানের ভোতা আক্রমনের বিপক্ষে শর্মা নিজের চতুর্থ ডাবল সেঞ্চুরি পেলেও অবিশ্বাসের কিছু নেই।

অধিনায়ক কোহলি অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করেছেন।

শংকরের ইনজুরি কিছুটা চিন্তার বিষয়। তবে তরুণ ঋষভ পন্থের সাহসী এ্যাপ্রোচ এক্স ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করলেও সেটা অবিশ্বাস্য হবেনা।
যথা সময়ে শংকর ফিটনেস ফিরে না পেলে তার জায়গায় ফিরতে লড়াই হবে পন্থ ও দিনেশ কার্তিকের মধ্যে।

সাফল্য পাচ্চেন অস্থির হার্ডিক পান্ডিয়া। মহেন্দ্র সিং ধোনি উইকেটরক্ষক হিসেবে যেমনি কার্যকর তেমনি ব্যাট হাতেও উঠতে পারেন জ্বলে।
আগের তিন ম্যাচে মাত্র আট বল খেলা ব্যাটসম্যান কেদার যাদবকে এ ম্যাচে ব্যাটিং অর্ডারে প্রমোশন দেয়ার একটা সুযোগ সৃষ্টি হতে পারে কোহলির সামনে।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টুর্নামেন্টে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছেন মোহাম্মদ সামি। হযরতউল্লাহ জাজাই, হাশমতউল্লাহ শাহিদি কিংবা আসগর আফগানের তুলনায় সামির গতি ও মুভমেন্ট অনেক বেশি কার্যকর হতে পারে। কুলদীপ যাদব অথবা যুজবেন্দ্রা চাহালকে মোকাবেলা করাটাও অনভিজ্ঞ আফগানিস্তানের জন্য অনেক কঠিন হবে।

দল :
ভারত : বরাট কোহলি(অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, জসপ্রিত বুমরাহ, যুজবেন্দ্রা চাহাল, ঋষভ পন্থ,এমএস ধোনি, রবীন্দ্র জাদেজা, কেদার যাদব, দিনেশ কার্তিক, কুলদীপ যাদব, ভুবনেশ্বর কুমার, মোহাম্মদ সামি, হার্ডিক পান্ডিয়া, কেএল রাহুল, বিজয় শংকর।

আফগানিস্তান : হযরতউল্লা জাজাই, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শাহিদি, নজিবউল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবী, আজগর আফগান,গুলবাদিন নাইব(অধিনায়ক), রশিদ খান, মুজিব উর রহমান, নুর আলী জাদরান, সামিউল্লা সিনওয়ারি, হামিদ হাসান, দৌলত জাদরান, আফতাব আলম, ইকরাম আলী খিল।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *