মুমিনুল হক , ছবিঃ সংগৃহীত।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টেস্টে হাল্কাভাবে নিতে চাননা মোমিনুল

ওয়ানডে সিরিজের পারফর্মেন্স বিবেচনা করে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টেস্টে হাল্কাভাবে নিতে চাননা বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মোমিনুল হক। তিনি বরেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রতিপক্ষ দলকে হারানোর জন্য ভাল খেলার চেয়ে বড় কোন মন্ত্র নেই।

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ হয়েছে বাংলাদেশের কাছে। শুধু তাই নয় ২০১৮ সালে পুর্ন শক্তির ক্যারিবীয় দলটিও বাংলাদেশ সফরে এসে হেরে গিয়েছিল দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে।

অবশ্য এবারের ক্যারিবীয় টেস্ট দলটি কিছুটা হলেও ওয়ানডে দলের চেয়ে অভিজ্ঞ। তাদের মধ্যে গভীরতার ঘাটতি থাকলেও রয়েছে টেস্ট অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের মত অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। মোমিনুল বাংলাদেশকে ফেভারিট মানলেও বলেছেন সেটা প্রমানের জন্য ভাল খেলতে হবে।

তিনি বলেন,‘ স্বাগতিক দল সব সময় ফেভারিট থাকে। তার মানে এই নয় যে আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হাল্কা ভাবে নিচ্ছি।

আমাদেরকে নিজেদের সামর্থ্যের প্রতি মনোযোগী হতে হবে। মাঠে আমাদেরকে সেরাটা নিয়ে ভাল করার চেস্টা করতে হবে।

এখানে অন্য কোন মন্ত্র বা ফর্মুলা নেই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে কোন দলের বিপক্ষে জয় পেতে হলে ভাল খেলতে হবে। সুতরাং আমাদেরকে সেরাটা প্রদর্শন করতে হবে।’

টাইগার অধিনায়ক বলেন,‘ আমরা বলতে চাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সব সময় চ্যালেঞ্জের। এখানে আপনাকে প্রত্যাশার চাপ বইয়ে বেড়াতে হবে। যে কারণে আপনি সারাক্ষন চাপে থাকবেন। প্রতিপক্ষ যারাই হোক আপনাকে চাপের মোকাবেলা করতেই হবে।’

মোমিনুল বলেন, দীর্ঘ ভার্সনের ক্রিকেটে অতীতের ব্যর্থতা ভুলে আপনাকে নতুন করে শুরু করতে হবে। আগামীকাল শুরু হতে যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্ট। করোনা মহামারির কারণে গত বছরের সবগুলো টেস্ট ভেস্তে যাবার আগে ২০২০ সালের ফেব্রæয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এক টেস্টের পর এই সিরিজটি হবে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট। ওই টেস্টে ইনিংস ও ১০৬ রানে জয়লাভ করেছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ।

নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ ৫ টেস্টের চারটিতেই জয়লাভ করেছে। তন্মধ্যে ২০১৮ সালের দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও রয়েছে। কিন্তু আফগানিস্তানের কাছে হারে টাইগারদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এটি প্রমান করেছে ব্যবধান যতই থাকুক না কেন অভিজ্ঞতা একটি বড় বিষয়। বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশ সব সময় দুর্বল। সেখানে একের পর এক ম্যাচ হেরে এসেছে তারা। বেশীরভাগ আবার ইনিংস ব্যবধানে।

এ পর্যন্ত ১১৯টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। তন্মধ্যে জয়লাভ করেছে মাত্র ১৪টি টেস্টে। হেরেছে ৮৯টি ম্যাচে। এদের মধ্যে আবার ৪৩টি ম্যাচেই টাইগাররা হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। বাকী ১৬টি টেস্ট ড্র হয়েছে। এই পরিসংখ্যানই বলে দেয় টেস্টে টাইগাররা কতটা দুর্বল।

মোমিনুল বলেন,‘ অতীত নিয়ে ভাবার প্রয়োজন নেই। কোভিড-১৯ মহামারির পর আমরা প্রথম টেস্ট খেলতে নামছি। সুতরাং সবকিছুই আমরা নতুন করে শুরু করতে চাই। বিদেশের মাটিতে বিগত কয়েকটি টেস্টে আমরা পরাজিত হয়েছি। নিজেদের মাটিতেও হেরেছি। তবে অতীত নিয়ে বসে থাকলে চলবে না। অতীতে কি ঘটেছে সেটিও মনে রাখতে চাই না। আমরা নতুনভাবেই সবকিছুু শুরু করব এবং আশা করছি ফলাফল আমাদের পক্ষেই আসবে।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *