সজীব দাস , ছবিঃসংগৃহীত।

করোনায় আক্রান্ত দেশের আরেক সাবেক ক্রিকেটার সজিব

আশিকুর রহমানের পর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দেশের আরেক সাবেক ক্রিকেটার সজিব দাস।

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

সপ্তাহখানেক আগে সপরিবারে ফরিদপুরের সদরপুরে শ্বশুরবাড়ি গিয়েছিলেন সজিব। সেখানেই তাঁর করোনা শনাক্ত হয়। সজিবের সাথে তাঁর মায়েরও করোনা পজিটিভ হয়েছে।

করোনাভাইরাস পজিটিভ হবার পর সজিবকে চিকিৎসা দিতে এগিয়ে এসেছে স্থানীয় প্রশাসন। স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় নিজ শ্বশুর বাড়িতেই আইসোলেশনে আছেন সজিব ও তার মা। শ্বশুর বাড়িতেই চিকিৎসা চলছে সজিব ও তার মা’র। সজিবের স্ত্রী ও সন্তানেরও করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের করোনা নেগেটিভ এসেছে। স্ত্রী ও সন্তান থেকে অন্য রুমে মাকে নিয়ে আছেন সজিব।

২০০৭ সালে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন সজিব। ঘরোয়া আসরে ভিক্টোরিয়া ও ওয়ারি ক্লাবের হয়ে অধিনায়কত্বও করেছেন তিনি।

এর আগে, গত ১২ মে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন আশিকুর। নিজ এলাকায় অসহায়দের সেবা করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হন সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ আশিকুর। করোনা পজিটিভ হলে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

২০০২ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে যুব বিশ্বকাপ খেলেছেন পেসার আশিক। পিঠের ইনজুরির কারনে আগেভাগে খেলা ছেড়ে কোচিংয়ে যোগ দেন তিনি। অন্তত ৫-৬ বছর প্রাইম ব্যাংকের সহকারি কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন আশিকুর। মাঝে প্রায় দুই বছর বাংলাদেশ নারী দলের সহকারি কোচ হিসেবেও কাজ করেছেন আশিক।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *