ছবিঃনিউজিল্যান্ড ক্রিকেট।

ঘরোয়া মৌসুম শুরু করছে নিউজিল্যান্ড

আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে ঘরোয়া মৌসুম শুরু করছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি)। করোনাভাইরাসের কারনে গেল মার্চ থেকে বিশ্ব ক্রিকেটের সাথে নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া আসরও বন্ধ হয়ে যায়।

প্লাংকেট শিল্ডের প্রথম রাউন্ড দিয়ে ঘরোয়া মৌসুম শুরু করবে এনজেডসি। নভেম্বর পর্যন্ত হবে প্রথম চার রাউন্ড। তারপর বিরতি দিয়ে আগামী বছরের মার্চ থেকে শুরু হবে পরের রাউন্ডগুলো। তবে এই আসরের শুরু থেকে দেখা যাবে না কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা জাতীয় দলের ছয় খেলোয়াড়কে। কারন সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে খেলছেন তারা।

নভেম্বরের শেষ দিকে ছেলে ও মেয়েদের ওয়ানডে প্রতিযোগিতা শুরু করবে এনজেডসি।

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট অপারেশন্স প্রধান রিচার্ড ব্রুয়ার বলেন, ‘এ মাস থেকেই আমরা ঘরোয়া আসর শুরু করছি। নতুন নিয়ম অনুযায়ী কোনও ম্যাচে খেলোয়াড়ের মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে, তার বদলি নামানো যাবে। তার রিপোর্টের ফল নেগেটিভ হলে, পুনরায় ম্যাচে ফিরতে পারবেন তিনি।’

করোনার কারনে কড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ঘরোয়া আসর শুরু করবে এনজেডসি। ব্রুয়ার বলেন, ‘আমরা সরকারের কড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনেই মৌসুম শুরু করছি। আশা করছি, কোন সমস্যা হবে না।’

আর ২৭ নভেম্বর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে নিউজিল্যান্ড। তারপর পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজন করতে সরকারের অনুমোদন পেয়েছে এনজেডসি।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়েছে নিউজিল্যান্ড। করোনার শুরু থেকেই কড়া প্রোটোকল মেনেছে দেশটির সরকার।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *