বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্র্যাক্টিস ,ছবিঃবিসিবি।

ঘূূর্ণিঝড় হুমকিতে নিরুদ্বিগ্ন বাংলাদেশ

রাজকোট, ৫ নভেম্বর, ২০১৯ : স্বাগতিক ভারতকে তাদের মাটিতে সিরিজ জয়ের ভাল সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় আবারো নির্ভিক ক্রিকেট খেলার অঙ্গীকারাবদ্ধ বাংলাদেশ ।

দিল্লিতে সিরিজেজর প্রথম ম্যাচে সাত উইকেটে জয় লাভের পর তিন টি-২০ সিরিজ জয়ে বাংলাদেশ দলের সামনে সিরিজ জয়ের দারুণ এক সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এমন সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় ভারতীয় প্রতিক্রিয়া ঘূূর্ণি ঝড় মহা’র হুমকি সত্তে¡ও টাইগার দলে কোন উদ্বেগ নেই। এখন তাদের একটাই চিন্তা প্রথমবারের মত ভারতের মাটিতে সিরিজ জয়। ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরের মতে আগামী ৬ নভেম্বর গুজরাটে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় মহা এবং ৭ নভেম্বর ম্যাচের দিন রাজকোটে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।

বায়ূ দূষনের কারণে খেলা বাতিল হয়ে যাওয়ার হুমকির মধ্যেই দিল্লিতে প্রথম ম্যাচে জয় পায় টাইগাররা। ম্যাচ চলাকালে বায়ূ দূষনের কারণে বিভিন্ন সমস্যা সত্তে¡ও বাংলাদেশী খেলোয়াড়রা সব কিছু তুচ্ছ করে ঐতিহাসিক জয় তুলে নেয়।

কিন্তু আগামী ম্যাচে সমস্যাটা অন্যরকম। এখানে আছে ঘূূর্ণি ঝড়ের হুমকি এবং স্বাগতিক ভারত সমতা আনতে এবং সিরিজ জয়ে মরিয়া। তবে পরপর দুই ম্যাচে ভারত একই ভুল করবে এমন চিন্তা করাটা বোকামি সেটা বাংলাদেশ শিবিরও জানে।

তবে ভারত কি করবে সেটা নিয়ে ভাবছে না বাংলাদেশ। টাইগাররা বরং দলের তরুণ সদস্য আফিফ হোসেনের বিষয়টি বিবেচনা করছে।

রাজকোটের সৌরাস্ট্র ক্রিকেট এসোসিয়েশন (এসসিএ) মাঠে প্রথম অনুশীলন শেষে আজ মঙ্গলবার আফিফ বলেন, ‘আমরা সিরিজ জয়-পরাজয় নিয়ে ভাবছিনা। এখন আমরা শুধুমাত্র নিজেদের কাজের প্রতিই নজর দিচ্ছি। আমরা যদি নিজেদের সেরা পারফরমেন্সটা করতে পারি.. যা হওয়ার হবে। আমরা কেবলমাত্র নিজেদের অবস্থান থেকে যার যার সেরা পারফরমেন্সটা করার চেষ্টা করছি।’

প্রথম ম্যাচে ভারতীয় দলের মধ্যমানের পারফরমেন্সের সমালোচনায় মেতে উঠেছে দেশটির গণমাধ্যম ও সাবেক খেলোযাড়রা- যা স্বাগতিকদের চাপে রেখেছে। তা ছাড়া টিম ইন্ডিয়া এটাও বেশ ভালভাবেই জানে- বাংলাদেশের কাছে সিরিজ হারলে সমর্থকদের রোষানলে পড়তে হবে।

ভারতীয় দল চাপে আছে কি নেই সে বিষয়ে তাদের কোন মাথা ব্যথা নেই এবং তারা কেবলমাত্র দ্বিতীয় ম্যাচ ও সিরিজ জিততে নিজেদের খেলার আরো উন্নতি ঘটাতে চান বলেও উল্লেখ করেন আফিফ

তিনি বলেন, ‘ভারত চাপে আছে কিনা-আমি বলতে পারি না। তবে প্রথম ম্যাচ জয়ের পর আমরা অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। আমরা বেশ ভাল বোধ করছি, যা আমাদের ভাল খেলার জন্য সহায়ক হবে।

পরবর্তী ম্যাচের জন্য সর্বোচ্চ প্রস্তুতির দিকেই নজর থাকায় ঘূর্ণিঝড় হুমকি নিয়ে বাংলাদেশ ভাবছে না বলেও জানান আফিফ।

তিনি বলেন, ‘আবহাওয়ার উপড় কারো নিয়ন্ত্রণ নেই। আবহাওয়ার সাথে খাপ খাওয়াতে আমরা দিল্লিতেও তিন দিন অনুশীলন করেছি। আবহাওয়া এবং সব কিছুর সঙ্গে মানিয়ে নিতে আমরা এখানে দুই দিন অনুশীলন করার সুযোগ পাচ্ছি। দেখা যাক শেষমেষ কি হয়।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *