ছবি : ভারত-নিউজিল্যান্ড টি-২০ ম্যাচ

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় রোহিত বিহীন ভারত

হ্যামিল্টন, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  : সফরের শুরুতে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছে সফরকারী ভারত। এবার সংক্ষিপ্ত ভার্সনের ধারাবাহিকতাটা ওয়ানডেতেও অব্যাহত রাখতে চায় টিম ইন্ডিয়া। তবে বড় ধরনের ধাক্কা নিয়ে আগামীকাল থেকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে নামছে ভারত। কাফ ইনজুরির কারনে চলমান নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছিটকে পড়েছেন রোহিত। তাই দলের সেরা খেলোয়াড়কে ছাড়া ওয়ানডে সিরিজ শুরু করছে ভারত। অন্য দিকে টি-২০ সিরিজের হতাশা কাটিয়ে ওয়ানডেতে সাফল্যের স্বাদ পেতে চায় নিউজিল্যান্ড। তবে ইনজুরির কারনে প্রথম দু’ওয়ানডেতে দলের বাইরে থাকছেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। হ্যামিল্টনে আগামীকাল সকাল ৮টায় শুরু হবে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দাপট দেখিয়ে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ জিতে নেয় ভারত। প্রথম দুই ম্যাচ ৬ ও ৭ উইকেটে জিতে টিম ইন্ডিয়া। তবে পরের দু’টি সুপার ওভারে জিততে হয় তাদের। আর শেষ ম্যাচটি ৭ রানে জিতে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করে ভারত। টি-২০ ইতিহাসে বিশ্বের প্রথম দল হিসেবে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করার বিশ্বরেকর্ড গড়ে বিরাট কোহলির দল।

তাই ফুরফুরা মেজাজে নিয়ে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করবে ভারত। তবে দলের কম্বিনেশন নিয়ে চিন্তার ভাঁজ ভারত শিবিরে। পঞ্চম ও শেষ টি-২০তে রান নিতে গিয়ে কাফ ইনজুরিতে পড়েন ঐ ম্যাচের অধিনায়ক রোহিত। তাই দলের সেরা ব্যাটসম্যানকে ছাড়া ওয়ানডে সিরিজ শুরু করবে ভারত। এমনকি দুই ম্যাচে টেস্ট সিরিজেও থাকছেন না রোহিত। গেল বছর ওয়ানডেতে ২৮ ম্যাচের ২৭ ইনিংসে রেকর্ড ৭টি সেঞ্চুরিতে ১৪৯০ রান করেছেন তিনি। যা গেল বছর কোন ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রান।

রোহিতের জায়গায় ওয়ানডে সিরিজের দলে ডাক পেয়েছেন টেস্ট ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজের আগে ঘাড়ের ইনজুরিতে পড়েছিলেন ভারতের আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ান। তার পরিবর্তে ওয়ানডে দলে ডাক পান পৃথ্বী শ। তাই এই দু’জন ভারতের হয়ে ইনিংস শুরু করবেন তা স্পষ্ট করেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রথম ম্যাচের আগে কোহলি বলেন, ‘এটিই খুবই হতাশার ও দুভার্গ্যের বিষয় যে, রোহিত পুরো সফর থেকেই ছিটকে পড়লো। সব ফরম্যাটেই সে আমাদের সেরা খেলোয়াড়। ধাওয়ানের পরিবর্তে আগেই দলে সুযোগ পেয়েছিলো পৃথ্বী। এবার রোহিতের পরিবর্তে দলে আসলো আগারওয়াল। তাই ওয়ানডে সিরিজে পৃথ্বী-আগারওয়াল ইনিংস শুরু করবেন।

ওপেনার হিসেবে টি-২০ সিরিজের সেরা খেলোয়াড় লোকেশ রাহুল পাঁচ নম্বরে খেলবে এবং উইকেটরক্ষকের দায়িত্বও পালন করবে। টি-২০ সিরিজের মত ওয়ানডেতেও আমরা ভালো খেলতে চাই। এই ফরম্যাটেও নিউজিল্যান্ডকে বিধ্বস্ত করে সিরিজ জিততে চাই আমরা।’

ভারতের যেমন নেই রোহিত, নিউজিল্যান্ডের নেই অধিনায়ক উইলিয়ামসন। তাই দলপতির দায়িত্ব পালন করবেন ওপেনার ও উইকেটরক্ষক টম লাথাম। দায়িত্ব পেয়ে ওয়ানডেতে ঘুড়ে দাঁড়ানোর অভিমত ব্যক্ত করলেন লাথাম, ‘উইলিয়ামসনের দলে না থাকাটা আমাদের জন্য বড় ক্ষতি। সে দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান ও ঠান্ডা মেজাজের অধিনায়ক। আমরা উইলিয়ামসনকে মিস করবো। টি-২০ সিরিজ এখন অতীত। ওয়ানডে ফরম্যাট নিউজিল্যান্ডকে চাঙ্গা করবে। কারন ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছি আমরা। নিজেদের সেরাটাই খেলেছি। কিন্তু ভাগ্য সহায় না হওয়ায়, শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে সাফল্য পেতেই আমরা মাঠে নামবো। টি-২০ সিরিজ হারের ক্ষত ওয়ানডে দিয়ে মুছতে হবে আমাদের। তবে কাজটি বেশ কঠিন। ভারত এখন যেকোন ফরম্যাটে দুর্দান্ত দল।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ তিন সিরিজেই জয় আছে ভারতের। এরমধ্যে একটি নিউজিল্যান্ডের মাটিতেই। গেল বছরের জানুয়ারিতে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে জিতেছিলো ভারত। তবে গেল জুনে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসে হওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরেছিলো ভারত। এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ১০৭ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে ভারত-নিউজিল্যান্ড। এরমধ্যে ভারত ৫৫টি ও নিউজিল্যান্ড ৪৬টিতে জয়ী হয়েছে।

ভারত দল : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), লোকেশ রাহুল (উইকেরক্ষক), পৃথ্বী শ, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, শ্রেয়াস আইয়ার, মনিষ পান্ডিয়া, ঋসভ পান্থ (উইকেরক্ষক), শিবম দুবে, কুলদ্বীপ যাদব, যুজবেন্দ্রা চাহাল, রবীন্দ্র জাদেজা, জসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ শামি, নবদ্বীপ সাইনি, শারদুল ঠাকুর এবং কেদার যাদব।

নিউজিল্যান্ড দল : টম লাথাম (অধিনায়ক), হামিশ বেনেট, মার্ক চাপম্যান, টম ব্যান্ডেল  , কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মার্টিন গাপটিল, কাইল জেমিসন, স্কট কুগেলাইন, জেমি নিশাম, হেনরি নিকোলস, মিচেল স্যান্টনার, টিম সাউদি, রস টেলর ও ইশ সোধি।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *