সিঙ্গাপুর বনাম জিম্বাবুয়ে টি-২০ ম্যাচ ,ছবিঃসংগৃহীত।

জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ইতিহাস রচনা করলো সিঙ্গাপুর

সিঙ্গাপুর, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  : প্রথমবারের মত আইসিসি’র কোন পূর্ণ সদস্য দেশকে পরাজিত করার ইতিহাস রচনা করেছে সিঙ্গাপুর ক্রিকেট। রোববার ঘরের মাঠ ইন্ডিয়ান এসোসিয়েশন গ্রাউন্ডে ত্রিদেশীয় টি-২০ টুর্নামেন্টে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চার রানে পরাজিত করে ঐতিহাসিক এই জয় তুলে নিয়েছে সিঙ্গাপুর। এর মাধ্যমে আগামী মাসে অনুষ্ঠিতব্য টি-২০ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের আগে নিজেদের আত্মবিশ্বাস অনেকাংশেই বাড়িয়ে নিল দলটি।

চলমান ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে শনিবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালের কাছে বিধ্বস্ত হয়েছিল স্বাগতিক সিঙ্গাপুর। ম্যাচটিতে নেপালের হয়ে পরশ খাড়কা মাত্র ৫২ বলে ১০৬ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দিয়ে প্রথম নেপালি হিসেবে টি-২০’তে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগে ব্যাট করতে নেমে আইসিসি’র সহযোগী দেশ সিঙ্গাপুর ১৮ ওভারে ৯ উইকেটে ১৮১ রানের বিশাল স্কোর গড়ে তুলে। ২০ বছর বয়সী ওপেনার রোহান রানগারাজান ২২ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলে সিঙ্গাপুরকে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন।

প্রথম ৬ ওভারে স্বাগতিকরা বিনা উইকেটে ৬২ রান সংগ্রহ করে। রোহান ও তার ওপেনিং জুটি সুরেন্দান চন্দ্রমোহন সপ্তম ওভারে নিজেদের উইকেট বিলিয়ে দেবার পর দলের হাল ধরেন পার্থ স্কোরচার্সের অল-রাউন্ডার টিম ডেভিড। ২৪ বলে তার ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ৪১ রান। এর মধ্যে ছিল চারটি ওভার বাউন্ডারি। এরপর মানপ্রিত সিংহের ৪১ রানের সুবাদে বড় স্কোর গড়ে সিঙ্গাপুর। ২৪ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন রায়ান বার্ল।

নতুন অধিনায়ক শন উইলিয়ামসের সামনে জয়ের জন্য ১৮২ রানের বিশাল লক্ষ্য দেয় স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা। ওপেনার রেগিস চাকাভা ভাল একটি শুরু করলেও তাকে কেউ সঙ্গ দিতে পারেনি। চাকাভা ১৯ বলে ৬টি বাউন্ডারি ও ৩টি ওভার বাউন্ডারির সহায়তায় করেছেন ৪৮ রান। অধিনায়ক শন উইলিয়ামসের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ বলে ৬৬ রান। একসময় ১৩ ওভারে ২ উইকেটে ১৪০ রান সংগ্রহ করে জিম্বাবুয়ে জয়ের আভাষ দিলেও এই রান জয়ের জন্য যথেষ্ঠ ছিলনা। শেষ ৫ ওভারে ৮ উইকেট হাতে নিতে জয়ের জন্য মাত্র ৪২ রানের প্রয়োজন ছিল। কিন্তু পরের পাঁচ ওভারে ৩৭ রানে গুটিয়ে যায় জিম্বাবুয়ের ইনিংস। ফলে ৪ রানের ঐতিহাসিক জয় পায় সিঙ্গাপুর।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *