পাকিস্তান ক্রিকেট দল, ছবিঃসংগৃহীত।

জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল

পাকিস্তান ক্রিকেট দল আগামী জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের(পিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াসিম খান। করোনাভাইরাসের কারনে এখন পর্যন্ত বেশক’টি দ্বিপাক্ষীক সিরিজ স্থগিত হয়েছে। ভবিষ্যতের সিরিজগুলো নিয়েও শঙ্কা ছিলো। কিন্তু দ্রুত মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর পথ তৈরি করছে ইংল্যান্ড। তাই আগামী জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে দল পাঠাতে রাজি হয় (পিসিবি)।

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

কোরোনাভাইরাস প্রতিরোধ

স্থানীয় একটি নিউজ চ্যানেলকে ওয়াসিম বলেন, ‘ইসিবির সাথে সফর নিয়ে আমাদের বিশদ আলোচনা হয়েছে। সফরে খেলোয়াড়দের কি নিরাপত্তা দেয়া হবে, কিভাবে পরিকল্পনা করা হবে, সবকিছুই আলোচনা হয়েছে। তাই জুলাইতে ইংল্যান্ডের সফরে দল পাঠাতে রাজি হয়েছে পিসিবি।’

রুদ্ধদার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজটি। এতে কোন আপত্তি করেনি পিসিবি। ওয়াসিম বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে, দর্শক ছাড়া সিরিজ আয়োজনের পরিকল্পনা করেছে ইংল্যান্ড। এতে আমাদেরও কোন আপত্তি নেই।’

তবে স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারনে কোন খেলোয়াড় যদি ইংল্যান্ড সফরে যেতে না চায়, এজন্য কাউকে জোড় করা হবে না বলেও জানান ওয়াসিম। তিনি বলেন, ‘যদি কোনও খেলোয়াড় ইংল্যান্ডে যেতে না চায়, তবে আমরা জোড় করবো না। তার সিদ্ধান্তই আমরা মেনে নিবো। এই পরিস্থিতিতে, খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগত সিদ্বান্তই চূড়ান্ত।’

ইংল্যান্ড সফরে গেলে পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে জানান ওয়াসিম। তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডে গিয়ে সকলকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। ভাইরাসের সংক্রমন এড়াতে চারটি বিমানে করে ইংল্যান্ড যাবে দল।’

সকলকে খেলোয়াড়কে স্বাস্থ্য বিধি মানতে হবে বলে জানিয়েছেন ওয়াসিম। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্য সব ব্যবস্থাই নিবে ইংল্যান্ড। তাদের পরিকল্পনাগুলা আমাদের বিস্তর বলেছে। পুরো সফরেই আমাদের সাথে মেডিকেল টিম থাকবে। নিয়মিতভাবে আমাদের সব খেলোয়াড়ের পরীক্ষা ও শরীরের তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণ করা হবে।

আসন্ন সফরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি করে টেস্ট ও টি-২০ ম্যাচ খেলবে পাকিস্তান দল।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *