ছবিঃ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-শ্রীলংকান ক্রিকেট।

টাইগারদের শ্রীলংকা সফর স্থগিত

দু’বোর্ডের মধ্যে কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে সমোঝতা না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের আসন্ন শ্রীলংকা সফরটি স্থগিত হয়ে গেলো। সফরে স্বাগতিক শ্রীলংকা দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলার কথা ছিল টাইগারদের।

শ্রীলংকা সফর স্থগিতের বিষয়টি আজ নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। শ্রীলংকা ক্রিকেটের (এসএলসি) প্রদত্ত শর্তাবলী মেনে নেয়া অসম্ভব বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, যখন এ জাতীয় কোন শর্তাবলী থাকবে না, তখন সুবিধাজনক সময়ে পুনরায় সিরিজটি আয়োজনের জন্য এসএলসিকে জানিয়েছে বিসিবি। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অর্ন্তভুক্ত।

সিরিজ স্থগিতের বিষয় নিয়ে আজ পাপন বলেন, ‘আমি বলেছিলাম, তারা যে দিক নির্দেশনা দিয়েছে তা মেনে কোনও টেস্ট সিরিজ খেলা সম্ভব নয়।’

শ্রীলংকার নির্ধারিত স্বাস্থ্য প্রোটোকল অনুসারে, দ্বীপপুঞ্জে সফর করলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। কিন্তু শ্রীলংকাকে কোয়ারেন্টাইন পর্ব অর্ধেক করা ও কোয়ারেন্টাইন চলাকালীন অনুশীলনের অনুমতি দেয়ার আহ্বান জানায় বিসিবি।

তবে স্বাগতিকরা বিসিবির শর্ত শিথিলে রাজি না হওয়ায় সিরিজটি স্থগিত হয়ে যায়।

তিনি বলেন, ‘তাদের ক্রিকেট বোর্ড (শ্রীলংকা), ক্রীড়া মন্ত্রনালয় অনেক চেষ্টা করেছে। আমরা আমাদের নুন্যতম চাহিদা তাদের পাঠিয়েছি। তারা একটি বাদে সবগুলোতেই রাজি ছিলো। যেটিতে তারা সম্মত হতে পারেনি, সেটি হলো গুরুত্বপূর্ণ- ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন।

আমাদের কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশন দু’টিই নিতে হবে। তাদের কোয়ারেন্টাইন সম্পূর্ণ আইসোলেশনের মতো।

কোয়ারেন্টাইনে সর্তকতা হিসেবে কেউই ঘর থেকে বের হতে পারে না। কিন্তু কারও কোভিড-১৯ পজিটিভ আসলে, আইসোলেশনের কারনে ঘর ছাড়তে পারে না। এর অর্থ বিভিন্ন দেশে পরিবর্তিত হয়। আমরা যা বুঝতে পেরেছি। শ্রীলংকা চায়, আমরা ১৪ দিনের জন্য আইসোলেশনে থাকি, যা সম্ভব নয়।’

বিসিবি প্রধান বলছেন, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকলে খেলোয়াড়দের ওপড় মনস্তাত্বিক প্রভাব পড়বে, যা তাদের পারফরমেন্সকে প্রভাবিত করতে পারে।

তিনি বলেন, ‘১৪ দিনের আইসোলেশন তাদের ফিটনেস ও পারফরমেন্সের জন্য একটা ধাক্কা হবে। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন মানসিক ব্যাধি থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে অনেক সময় লেগে যাবে। আমরা ইতোমধ্যে বলে দিয়েছি, এই পরিস্থিতিতে খেলা সম্ভব নয়।’

সভাপতি আরও বলেন, ‘দেশের বাইরে থেকে আসা সকলকেই ১৪ দিনের কঠোর কোয়ারেন্টাইন অনুসরণ করতে বলা হয়, এটি শুধুমাত্র আমাদের জন্য নয়। এই মূর্হুতে তাদের দেশে এমনই নিয়ম। তারা আমাকে এটি অবহিত করেছে, এই পরিস্থিতিতে সফর করা সম্ভব নয় বলে তাদের জানিয়েছি আমরা। যখন পরিস্থিতি ভালো হবে, তখন আমরা খেলবো।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *