বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট ২০২১, ছবিঃ সংগৃহীত।

টাইগারদের ৩শ রানে আটকে রাখতে চায় ক্যারিবীয়রা

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সফল বোলার ছিলেন বাঁ-হাতি স্পিনার জোমেল ওয়ারিকান। ২৪ ওভার বল করে ৫৮ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

ওয়ারিকানের বোলিং নৈপুন্যে প্রথম দিন বড় স্কোর করতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষের রানের লাগাম টেনে ধরেন তিনি। দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৪২ রান। তবে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশকে ৩শর বেশি রানে আটকে রাখতে চান ওয়ারিকান।

প্রথম দিনের খেলা শেষে ওয়ারিকান বলেন, ‘আগামীকালের আমাদের পরিকল্পনা হলো দ্রæত বাংলাদেশের উইকেট শিকার করা। যাতে বাংলাদেশকে ৩শ রানের মধ্যে বেঁধে ফেলা সম্ভব হয়। এরপর ব্যাটিংএ ভালো করা।’

২০১৫ সালে টেস্ট অভিষেক হয় ওয়ারিকানের। এখনো দলে নিজের জায়গা পাকা করতে পারেননি এই স্পিনার। কিন্তু তার টেস্ট পরিসংখ্যান বলছে, তার পারফরমেন্স আশানুরুপ। এই টেস্টের আগে মাত্র ৮টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। উইকেট নিয়েছেন ২২টি।

জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ ২০১৯ সালের নভেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট খেলেন ওয়ারিকান। ঐ ম্যাচে মাত্র ১ উইকেট নেন তিনি। তার আগে ২০১৮ সালের নভেম্বরে এই চট্টগ্রামেই বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলেছিলেন ওয়ারিকান। ঐ টেস্টে ৬ উইকেট নিয়েও দল থেকে বাদ পড়েন তিনি।

তবে এক বছরের বেশি সময় পর দেশের হয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট খেলার সুযোগ হয় ওয়ারিকানের। সুযোগটা ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের রান আটকানোর পাশাপাশি তিনটি মূল্যবান উইকেটও তুলে নিয়েছেন ওয়ারিকান।

আজকের দিনকে ‘ভালো’ বলছেন ওয়ারিকান। নিজের পারফরমেন্সেও খুশী তিনি, ‘আমার জন্য আজকের দিনটি বেশ ভালো ছিল। বাংলাদেশের তিনটি উইকেট শিকার করতে পেয়েছি। এর মধ্যে দুই উইকেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিলো। গুরুত্বপূর্ণ ব্রেক-থ্রুও এনে দিতে পেরেছি। আশা করছি, আগামীকালও সফর হবো।’

লাইন-লেন্থ বজায় রেখে বল করাটাই তার মূল লক্ষ্য ছিলো বলে জানা ওয়ারিকান, ‘সুনির্দিষ্ট লাইন-লেন্থ ও পরিকল্পনা বজায় রেখে বল করাটা আমার প্রধান কাজ ছিলো। প্রতিপক্ষের উপর চাপ তৈরি করতে ওভার প্রতি তিন রানের নিচে রাখতে আমাকে অনেক বেশি সুশৃঙ্খলাভাবে বল করতে হয়েছে।’

প্রথম দিন ওয়ারিকানের ইকোনমি রেট ছিলো ২ দশমিক ৪২। ইকোনমি রেট ভালো রাখার পাশাপাশি বাংলাদেশের ওপেনার সাদমান ইসলাম, অধিনায়ক মোমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমকে আউট করেন তিনি। তিন শিকারের মধ্যে মুশফিকের উইকেটকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন ওয়ারিকান। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মুশফিকের উইকেটটা এগিয়ে থাকবে। নতুন বল নেয়ার আগে উইকেট প্রয়োজন ছিল এবং সে সময়ে উইকেট পাওয়াটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

দিন শেষে বাংলাদেশের ইনিংসের রান রেট ছিলো ২ দশমিক ৬৮। তবে এই পিচকে ব্যাটিং সহায়ক বলছেন ওয়ারিকান। তিনি বলেন, ‘ ব্যাটিংএর জন্য খুব ভালো পিচ। বল পুরনো হবার সাথে-সাথে পিচ আরও ভালো হচ্ছে। তবে আমাদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *