ছবিঃবাংলাদেশ-পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

টি-২০ সিরিজের আগ মুর্হুতে লাহোরে ৩ শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার

করাচি, ২১ জানুয়ারি ২০২০ : বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের আসন্ন সফরকে সামনে রেখে তোড়জোড় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন করেছে পাকিস্তান। লাহোরে তিন টি-২০ সিরিজ খেলতে আগামী ২৩ জানুয়ারি পাকিস্তানে পৌঁছাবে বাংলাদেশ দল। তাই এখন থেকেই নিরাপত্তার চাদরে লাহোরকে ঢেঁকে ফেলতে সবধরনের প্রস্তুতি নিয়ে নিয়েছে পাকিস্তানের সরকার ও আইন শৃঙ্খলাবাহিনী। যেকোন ধরনের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা মোকাবেলা করতে প্রস্তুত তারা। তারই ধারাবাহিকতায় অভিযান চালিয়ে আজ তিন শীর্ষ সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে পাঞ্জাব পুলিশ। দেশটির দৈনিক দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিপোর্টে এ কথা বলা হয়েছে। টি-২০ সিরিজ আগ মূর্হুতে পাঞ্জাবে ৩ সন্ত্রাসী আটক হওয়ায়, আবারো দেশটির নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তান জুড়ে সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে আসছিলো ঐ তিন সন্ত্রাসী। অভিযুক্ত ৩ সন্ত্রাসী হলেন- ইমরান, মুহাম্মদ আবিদ সোহাইল ও মুহাম্মদ রাজা। সিটিডি বাহাওয়ালাঙ্গার টিম তাদের স্থানীয় হারুনাবাদ বাইপাস থেকে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়। যার মধ্যে দু’টি শপিং ব্যাগে ০৭ ডিটোনেটর, সুরক্ষা ফিউজ, দু’টি বলের বিয়ারিং, ১টি বৈদ্যুতিক ব্যাটারি, একটি বৈদ্যুতিক সুইচ ও বিপুল পরিমান গোলাবারুদ। গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসীরা বাহাওয়ালাঙ্গারে আক্রমণের পরিকল্পনা করছিল বলে জানা গেছে।

সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার সন্তোস প্রকাশ করে পাঞ্জাব পুলিশের প্রধান শোয়েব দস্তগির বলেন, ‘এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের প্রতিটি জেলাকে সুরক্ষা দিতে ইন্টিলিজেন্স-বেজড অপারেশন চালু করা হয়েছে। আর সেই অপারেশনেই সিটিডি বাহাওয়ালাঙ্গার টিমের দ্বারাই আটক হয় তিন সন্ত্রাসী।’

সন্ত্রাসীদের একটি তালিকাও করেছে পাঞ্জাবের আইন শৃঙ্খলাবাহিনী। ঐ তালিকা অনুযায়ী অভিযান অব্যাহত রাখবে তারা। বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজে সবধরনের নিরাপত্তা দিতে তৈরি পাকিস্তান সরকার। এই সফর চলাকালীন ১০ হাজারেরও বেশি আইন শৃঙ্খলাবাহিনী নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ের নিরাপত্তা দেয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছে পাকিস্তান সরকার।

এদিকে, তিন দফায় পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আগামী ২৪ জানুয়ারি তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু করবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। পরের দু’টি ম্যাচ হবে ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি। তিনটি ম্যাচই হবে লাহোরে।

এরপর দ্বিতীয় ধাপে পাকিস্তান সফরে রাওয়ালপিন্ডিতে ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রথম টেস্ট হবে। তৃতীয় ও শেষ ধাপে আাগমী ৩ এপ্রিল একমাত্র ওয়ানডে খেলবে টাইগাররা। করাচির ওয়ানডের পর ৫ এপ্রিল থেকে সফরের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *