নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল , ছবিঃটুইটার।

নিউজিল্যান্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ হলো ভারত

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ হলো সফরকারী ভারত। দু’দিন বাকী রেখেই আজ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে নিউজিল্যান্ড ৭ উইকেটে হারিয়েছে ভারতকে। ফলে দুই ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে নিলো কিউইরা। এবারে সফরে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছিলো ভারত। এরপর তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও দুই টেস্ট সিরিজে ভারতকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দেয় নিউজিল্যান্ড।

ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট জয়ের পথটা দ্বিতীয় দিনই সহজ করে ফেলেছিলো নিউজিল্যান্ড। বোলারদের দুর্দান্ত নৈপুন্যে প্রথম ইনিংস থেকে ৭ রানের লিড নিয়েছিলো ভারত। লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে নামা ভারতকে বেকাদায় ফেলে দেয় নিউজিল্যান্ডের বোলাররা। ৯০ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় ভারত। তাই দ্বিতীয় দিন শেষে ৪ উইকেট হাতে নিয়ে মাত্র ৯৭ রানে এগিয়ে ছিলো বিরাট কোহলির দল। হনুমা বিহারি ৫ ও উইকেটরক্ষক ঋসভ পান্থ ১ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন।

তৃতীয় দিনের ১৬তম বলেই ৯ রান করা বিহারিকে বিদায় দিয়ে নিউজিল্যান্ড সাফল্যের মুখ দেখান দলের পেসার টিম সাউদি। পরের ওভারে ভারতের শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যান পান্থের বিদায় নিশ্চিত করেন নিউজিল্যান্ডের পেস অ্যাটাকের আরেক ভরসা ট্রেন্ট বোল্ট। নিয়মিত উইকেটরক্ষক ঋদ্ধিমান সাহার পরিবর্তে দুই টেস্টে অংশ নিয়ে নিজের ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখলেন পান্থ।

প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে ৭০ রান করার সুবাদে সেরা একাদশে সুযোগ পেয়ে যান পান্থ। কিন্তু টেস্টের চার ইনিংসে যথাক্রমে ১৯, ২৫, ১২ ও ৪ রান করেন তিনি।

দলীয় ৯৭ রানেই বিহারি ও পান্থকে হারিয়ে দ্রুত গুটিয়ে যাওয়া সময়ের ব্যাপার ছিলো ভারতের। কিন্তু সেটি হতে দেননি রবীন্দ্র জাদেজা। তবে বড় ইনিংসও খেলতে পারেননি তিনি। নয় নম্বরে নামা জাদেজা ১টি করে চার-ছক্কায় ২২ বলে ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ দুই ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ সামি ৫ ও জসপ্রিত বুমরাহ ৪ রান করে ফিরেন। ফলে ৪৬ ওভারে ১২৪ রানেই গুটিয়ে যায় ভারত। আজ শেষ ৪ উইকেটে ১০ ওভারে ৩৪ রান করতে পারে ভারত। নিউজিল্যান্ডের বোল্ট ২৮ রানে ৪টি ও সাউদি ৩৬ রানে ৩টি উইকেট নেন।

১৩২ রানের সহজ লক্ষ্যে খেলতে নেমে দুই ওপেনার টম লাথাম ও টম ব্লান্ডেল নিউজিল্যান্ডের জয়ের ভিত গড়ে দেন। উদ্বোধনী জুটিতে ২৮ ওভারে ১০৩ রান করেন তারা। ১০টি চারে ৭৪ বলে ৫২ রান করা লাথামকে শিকার করে নিউজিল্যান্ডের উদ্বোধনী জুটি ভাঙ্গেন ভারতের পেসার উমেশ যাদব।

অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে নিয়ে ম্যাচ শেষ করার পরিকল্পনায় ছিলেন ব্লান্ডেল। কিন্তু সেটি হতে দেননি ভারতের পেসার বুমরাহ। দু’জনকেই শিকার করেছেন তিনি। প্রথমে ৫ রান করা উইলিয়ামসনকে ১১৩ বলে ৮ বাউন্ডারি ও ১ ওভার বাউন্ডারিতে ৫৫ রান করা ব্লান্ডেলকে আউট করেন বুমরাহ।

ব্লান্ডেলের বিদায়ের সময় জয় থেকে মাত্র ১১ রান দূরে নিউজিল্যান্ড। দলের বাকী প্রয়োজন মিটিয়েছেন রস টেইলর ও হেনরি নিকোলস। দু’জনই ৫ রান করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। ভারতের বুমরাহ ২টি ও উমেশ ১টি উইকেট নেন। প্রথম ইনিংসে ৪৫ রানে ৫ উইকেট নেয়ায় ম্যাচ সেরা হয়েছেন নিউজিল্যান্ডের জেমিসন। সিরিজ সেরা হয়েছেন নিউজিল্যান্ডের টিম সাউদি। সিরিজে ১৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

এই সিরিজ হারেরও পর ৯ খেলায় ৭ জয় ও ২ হারে ৩৬০ পয়েন্ট নিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থাকলো ভারত। এই সফরের আগে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের লড়াইয়ে অপরাজিত ছিলো ভারত। সিরিজ জয়ে ৭ খেলায় ৩ জয়, ৪ হারে ১৮০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয়স্থানে উঠে এলো নিউজিল্যান্ড। ১০ খেলায় ৭ জয়, ২ হার ও ১টি ড্রতে ২৯৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *