ছবি: নিউজিল্যান্ড বনাম পাকিস্তান।

পাকিস্তান দলকে সর্তক বার্তা দিলো নিউজিল্যান্ড

আবারো যদি করোনার কড়া বিধি ভঙ্গ করে, তবে পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে দেশে ফেরত পাঠাবে নিউজিল্যান্ড সরকার। সফররত পাকিস্তান দলকে এমনই সর্তক বার্তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার।

নিউজিল্যান্ড সফররত পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ছয় সদস্য বৃহস্পতিবার করোনা পজিটিভ হয়। তাদের মধ্যে চারজন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন, বাকি দুইজন আগের থেকেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। দলে করোনা আক্রান্ত থাকার পরও কোয়ারেন্টাইনের শর্ত ভঙ্গ করেছে পাকিস্তান দল। তাই পাকিস্তানকে সর্তক করেছে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ড.অ্যাশলি ব্লমফিল্ড।

সিসিটিভিতে পাকিস্তানের নিয়ম ভঙ্গের সবকিছু দেখেছেন নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক। নিউজিল্যান্ডের আরএনজেড নামে একটি রেডিওতে খোলাসা করে ব্লমফিল্ড বলেন, ‘কোয়ারেন্টাইনের প্রথম তিন দিন নিজেদের রুমে থাকা বাধ্যতামূলক ছিলো পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের।

কিন্তু তাদের কয়েকজন কক্ষের বাইরে বারান্দায় মেলামেশা করেছে। খাবার ভাগাভাগিও করেছেন, এমনকি মাস্ক পরাও ছিলো না। আমরা ঠিক জানি না, কতবার এসব তারা করেছেন। করোনা কড়া নিয়ম মানার শর্তে স্বাক্ষর করেই তো নিউজিল্যান্ড সফরে এসেছে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তাই সবকিছু তাই তাদের পরিস্কারভাবেই জানার কথা।’

এমন ঘটনায় খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে হোয়াটসঅ্যাপে কড়া অডিও বার্তা পাঠান পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। সেখানে তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড কর্তপক্ষের সাথে আমার কথা হয়েছে, তারা জানিয়েছেন, তিন-চারটি বিধি ভঙ্গ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কোনো ছাড় দিবে না নিউজিল্যান্ড সরকার। তাই আমাদেরকে চূড়ান্তভাবে সর্তক করে দেয়া হয়েছে। এই দেশের সরকার আমাকে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, আরেকবার নিয়ম ভাঙ্গলে, দল দেশে পাঠিয়ে দেয়া হবে।’

ওয়াসিম আরও বলেন, ‘আমরা জানি, কোয়ারেন্টাইনে থাকা সহজ নয়। ইংল্যান্ডেও একই অবস্থার মধ্যে খেলতে হয়েছে। কিন্তু এটা দেশের সম্মান ও বিশ্বাসযোগ্যতার ব্যপার। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ করে, যেভাবে খুশি বাইরে ঘোরা, মেলামেশা, আড্ডা, খাওয়া-দাওয়া সবই করা যাবে। তাই সবাইকে নিয়ম মানতে হবে।’

তিনদিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে শুক্রবার থেকে অনুশীলন শুরু করার কথা ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু বিধি ভঙ্গ করায়, বৃহস্পতিবার থেকে আবারো নতুন করে তিন দিনের কোয়ারেন্টাইন শুরু তাদের। তিনদিন পর আরেক দফা করোনা পরীক্ষা করা হবে পাকিস্তান দলের। সেখানে নেগেটিভ আসলেই, অনুশীলন শুরু করতে পারবে তারা।

তবে পুরো দু’সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের। এই দু’সপ্তাহের মধ্যে প্রথম তিন দিন শেষে অনুশীলন করবে তারা।

পাকিস্তান দলে করোনা আক্রান্ত ৬ ক্রিকেটার হলেন- সরফরাজ আহমেদ, রোহাইল নাজির, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ আব্বাস, আবিদ আলি ও দানিশ আজিজ।

নিউজিল্যান্ড সফরে তিনটি টি-টুয়েন্টি ও দুই টেস্ট খেলতে চাটার্ড ফ্লাইটে অকল্যান্ডে পৌছায় পাকিস্তান দল। সেখান থেকে ক্রাইস্টচার্চ গিয়ে কোয়ারেন্টাইনে আছে খেলোয়াড়রা।

 

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *