ব্রায়ান লারা ,ছবি: সংগৃহীত।

পোলার্ডের অধীনে ভাল করবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ব্রায়ান লারা

হায়দারাবাদ, ৬ ডিসেম্বর. ২০১৯  : অধিনায়ক হিসেবে নবাগত হলেও অভিজ্ঞতার কারণে কাইরন পোলার্ডের অধীনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাল করবে মনে করছেন কিংবদন্তী ব্রায়ান লারা। আগামী বছর াস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠেয় টি-২০ বিশ্বকাপে ক্যারিবিয় দলকে শক্তিশালী করতে পোলার্ডের অভিজ্ঞতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলেও মনে করছেন লারা।

গত সেপ্টেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিমিত ওভার দলের অধিনায়কত্ব পান পোলার্ড। তুলনামূলক কম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একটি দল নিয়েই আজ স্বাগতিক শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু করছেন পোলার্ড।

অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর পোলার্ডের নেতৃত্বে সম্প্রতি ভারতের মাটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি ওযানডে ও একটি টি-২০ সিরিজ খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। স্থায়ী অধিনায়ক হিসেবে ভারত সিরিজ হবে পোলার্ডের দ্বিতীয় এসাইনমেন্ট।

আফগানিস্তানকে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করলেও সমসংখ্যক ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ১-২ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ।

মুম্বাইয়ে এক অনুষ্ঠানে লারা বলেন, ‘১২ বছর আগে তাকে বিশ্বকাপের জন্য প্রথমবার ক্যারিবিয় দলে ডাকার বিষয়টি আমার মনে আছে। হতে পারে তার পারফরমেন্স তারপর থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে খুব বেশি কিছু দিতে পারেনি। তবে সমগ্র বিশ্ব জুড়ে তিনি বিভিন্ন লীগে খেলে আসছেন।’

সংক্ষিপ্ত ভার্সনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০১৬ আসরের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে মিরোপা জিতেছিল ক্যারিবিয়রা। কিন্তু তারপর থেকে এ ফরমেন্টে তাদের পারফরমেন্স দিনকে দিন খারাপ হয়েছে। এ সময়ে ২৯টি মধ্যে কেবলমাত্র ১২টি ম্যাচ জিতেছে তারা।

আগামী এক বছরের মধ্যে দু’টি টি-২০ বিশ্বকাপ খেলবে পোলার্ড এন্ড কোং। আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় এবং এরপর ২০২১ সালে একই সময়ে ভারতেরে মাটিতে। তবে পোলার্ডের অভিজ্ঞতা দলের জন্য সহায়ক হবে মনে করছেন ৫০ বছর বয়সী লারা।

তিনি বলেন, ‘সম্ভবত অবশ্যই একটা পরিকল্পনা আছে। কমবেশি ১২ মাস পর বিশ্বকাপ এবং তারা একজন যথার্থ ব্যক্তিকেই সেখানে চাচ্ছে। যিসি মাঠে দৌঁড়াতে পারবেন। এমনটা করার অভিজ্ঞতা পোলার্ডের আছে।’

এ ত্রিনিদাদিয়ান আরো বলেন, ‘আমি মনে করি এটা একটা ভাল সিদ্ধান্ত। তবে এ জন্য অনেক লড়াই করতে হবে।’

আফগানিস্তানের কাছে সিরিজ হার ক্যারিবিয়ান দলের জন্য একটা সতর্ক সংকেত হতে পারে। তবে লারার মতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এখনো এমন একটা দল যাদেরকে ‘ভয়’ করতেই হবে।

লারার মন্তব্য, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই বারের চ্যাম্পিয়ন এবং সংক্ষিপ্ত ভার্সনে বিশ্বের অনেক প্রতিপক্ষই এই দলটি সম্পর্কে ভীত।

তবে বিশ্বকাপের আগে তাকে এ ম্যাচগুলো দিয়ে তাকে দলটি গড়ে নিতে হবে। ভারতের মাটিতে ভারতের বিপক্ষ খেলা সব সময়ই কঠিন চ্যালেঞ্জ।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *