ছবিঃপাকিস্তান সুপার লীগ

প্রথমবারের মত নিজ দেশে পিএসএল আয়োজন করবে পিসিবি

ইসলামাবাদ, ২ জানুয়ারি, ২০২০  : ক্রিকেট খেলার জন্য পাকিস্তান নিরাপদ- এই ধারণায় বিশ্বাসী হয়ে বিদেশী দলগুলোকে নিজ দেশে আনার আরও একটি পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

এই প্রথমবারের মত পাকিস্তানের ঘরোয়া আসর পিএসএল টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সব ম্যাচ নিজ দেশে আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। দেশটির চার শহরে অনুষ্ঠিত হবে এবারের আসর।

আগামী ২০ ফেব্রুয়ারী শুরু হতে যাওয়া পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) ৩৪টি ম্যাচ করাচি, লাহোর, রাওয়ালপিন্ডি এবং মুলতানে অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে পিসিবি। ২২ মার্চের ফাইনালসহ মোট ১৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে লাহোরে।

২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত পিএসএল’র প্রথম আসর পুরোপুরি অনুষ্ঠিত হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ২০১৭ সালে দ্বিতীয় আসরের শুধুমাত্র ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছিল লাহোরে। ২০১৮ সালে লাহোর ও করাচিতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল টুর্নামেন্টের চারটি ম্যাচ। বাকিগুলো অনুষ্ঠিত হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। আর গত বছর করাচিতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল আটটি ম্যাচ।

স্থানীয় ছয়টি দল কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স , ইসলামাবাদ ইউনাইটেড, মুলতান সুলতানস, করাচি কিংস, লাহোর কালান্দার্স এবং পেশোয়ার জালমির হয়ে এবারের আসরে মোট ৩৬জন বিদেশী খেলোয়াড় অংশ গ্রহণ করবে। বিদেশী খেলোয়াড়দের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন ইংল্যান্ডের জেসন রয়, দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের লেন্ডল সিমন্স।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা দল বহনকারী বাসে জঙ্গী হামলার পর পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ হয়ে পড়ে। ঐ ঘটনার পর থেকে দীর্ঘ দিন যাবত বিদেশী দলগুলোর আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে পাকিস্তান।

পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘পাকিস্তানে টেস্ট ক্রিকেট ফেরার পর পুরো পিএসএল নিজ মাঠে আয়োজন করাটা হবে আমাদের আরেকটি বড় অর্জন। ’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *