সাকিব আল হাসান ,ছবিঃসংগৃহীত।

বাংলাদেশ দলকে শুভ কামনা জানিয়েছেন সাকিব

করাচি, ২২ জানুয়ারি ২০২০  : সাম্প্রতিক পারফরমেন্সে বিচারে পাকিস্তান সফরে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ বাংলাদেশের জেতা উচিত বলে মনে করেন দেশ সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

টি-২০ র‌্যাংকিং-এ এক নম্বরে আছে পাকিস্তান। কিন্তু সম্প্রতি দেশের মাটিতে শ্রীলংকার কাছে তিন ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় পাকিস্তান।
তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে নিজেদের দল সাজিয়েছে পাকিস্তান। ‘বঙ্গবন্ধু’ বিপিএলে বল হাতে সেরা পারফরমেন্স করেও জাতীয় দলে জায়গা হয়নি বাঁ-হাতি পেসাার মোহাম্মদ আমিরের।

আজ লাইফবয়ের প্রচারমূলক কর্মকান্ডের সময় বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর নিয়ে কথা বলেন সাকিব, ‘সম্প্রতি পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছে শ্রীলংকা। সুতরাং আমাদেরও সিরিজ জেতা উচিত।’

নিরাপত্তা ইস্যুটি সবচেয়ে বড় হবার পরও পাকিস্তান সফরের জন্য বাংলাদেশকে শুভ কামনা জানিয়েছেন সাকিব, ‘আমি আশা করি, তার সেখানে নিরাপদে থাকবে এবং নিরাপদে দেশে ফিরবে এবং অবশ্যই সাফল্য নিয়ে দেশে ফিরবে।

নিষেধাজ্ঞা কারণে ক্রিকেট থেকে দূরে থাকলেও, কর্পোরেট ব্যস্ততার জীবন ভালোই উপভোগ করছেন সাকিব। তারপরও ক্রিকেটকে খুব বেশি মিস করছেন জানাতে ভুল করেননি তিনি, ‘আপনি যদি জীবনের বেশিরভাগ অংশে কোন কিছু নিয়ে ব্যস্ত থাকেন, যা পছন্দ করেন বা অপছন্দ করেন, স্বাভাবিকভাবেই সেটি মিস করবেন। তাই এটি আমার দৃষ্টিকোন থেকে ব্যতিক্রম কিছু না।’

ক্রিকেটে ফেরা নিয়ে সাকিব বলেন, ‘ক্রিকেটে ফেরা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হ্েব। আমি যদি বলি, নিজেকে প্রস্তুত করার জন্য আমি অনেক কিছু করছি, কিন্তু ক্রিকেটে ফিরে আসার পর তা প্রমান করতে না পারি। তবে সেটি গ্রহণযোগ্য হবে না এবং ফলও ভালো হবে না। অপেক্ষায় থাকুন, সময় বলবে বাকিটা।

২০১৮ সালের মার্চে কেপটাউনে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারীতে যুক্ত থাকায় বিভিন্ন স্পন্সর প্রতিষ্ঠান অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথের সাথে চুক্তি বাতিল করেছিল। কিন্তু সাকিবের ক্ষেত্রে তা হয়েছে উল্টো। নিষেধাজ্ঞার পর সাকিবের চুক্তি আরও বেশি বর্ধিত হয়েছে। এখানে রহস্যটা কি জানতে চাওয়া হলে সাকিব বলেন, ‘ভাল হয় কারণটা আপনিই খুঁজে বের করুন।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *