মাশরাফি বিন মর্তুজা ,ছবি: সংগৃহীত।

বাকী ম্যাচ নিয়ে আশাবাদি মাশরাফি

কার্ডিফ, ৯ জুন ২০১৯ : বাংলাদেশের পয়মন্ত ভেন্যু কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্স। কিন্তু সেখানে এবার সাফল্য পেল না বাংলাদেশ। গতকাল ইংল্যান্ডের কাছে ১০৬ রানের বড় ব্যবধানে হারে টাইগাররা। এই ম্যাচ হারলেও টুর্নামেন্টে বাকী ম্যাচগুলোতে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদি বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

কার্ডিফে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। সিদ্বান্তটা সঠিক ছিলো, সেটি প্রমাণ করার পথেই ছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি ও সাকিব আল হাসান। এই দু’জন বাংলাদেশের বোলিং ইনিংস উদ্বোধন করেন। প্রথম ৫ ওভারে ইংল্যান্ডকে ১৫ রানের বেশি তুলতে দেননি মাশরাফি-সাকিব জুটি। এসময় মাশরাফি ২ ওভারে ৭ ও সাকিব ৩ ওভারে ৮ রান দেন। কিন্তু ষষ্ঠ ওভার থেকেই চার-ছক্কার ফুলঝুড়ি ফুটাতে শুরু করেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো। ফলে এই উদ্বোধনী জুটিই ১৯ ওভারে ১২৮ রান যোগ করে ফেলেন। শুরুতে শক্ত ভিত পেয়ে যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৮৬ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড। দলকে রানের পাহাড়ে বসিয়েছেন ওপেনার রয়। ১৪টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১২১ বলে ১৫৩ রানের দর্শনীয় ইনিংস খেলেন রয়।

তবে লক্ষ্যটা আরও ছোট হলে রান তাড়া করা সহজ হতো বলে মনে করেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি। ম্যাচ শেষে মাশরাফি বলেন, ‘৩৮৭ রানের টার্গেট অনেক বেশি হয়ে গেছে। যদি ৩২০-৩৩০ রানের টার্গেট হতো তবে চেজ করার জন্য ভিন্ন পরিস্থিতি তৈরি হতো। বোলিং ইনিংসে প্রথম চার-পাঁচ ওভার আমরা ভালো করেছি। কিন্তু এরপরই তারা ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। আমরা জানতাম জেসন রয়কে আউট করতে পারলে আমরা ম্যাচে ফিরতে পারবো। তবে এখনো ছয়টি ম্যাচ রয়েছে আমাদের। আমরা ঐসব ম্যাচে জিততে চাই। আশা করছি, ছেলেরা ঘুড়ে দাঁড়াবে।’

প্রথম দু’ম্যাচে হাফ-সেঞ্চুরির পর গতকাল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশের সেরা খেলোয়াড় সাকিব। ১২টি চার ও ১টি ছক্কায় ১১৯ বলে ১২১ রান করেন সাকিব। তার সেঞ্চুরি সত্ত্বেও ২৮০ রানে অলআউট হয়ে ম্যাচ হারে বাংলাদেশ। সাকিবের প্রশংসা করতেও ভুল করেননি মাশরাফি, ‘প্রথম ম্যাচ থেকেই দুর্দান্ত পারফরমেন্স করে আসছেন সাকিব। তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে ভালো করছেন তিনি। বল হাতেও ভালো করছেন সাকিব।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *