ডি ককের সেঞ্চুরি উদযাপন , ছবি: টুইটার।

বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে হারের লজ্জা দিলো দক্ষিণ আফ্রিকা

কেপ টাউন, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  : ওয়ানডে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে হারের লজ্জা দিলো দক্ষিণ আফ্রিকা। গতরাতে সিরিজের প্রথম ম্যাচে প্রোটিয়ারা ৭ উইকেটে হারিয়েছে ইংলিশদের। ১০৭ রানের ইনিংস খেলে দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ে প্রধান ভূমিকা রাখে অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা।

কেপটাউনে টস জিতে প্রথমে বোলিং করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্যাট হাতে শুরুটা ভালোই ছিলো ইংল্যান্ডের। দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো ৫৬ বলে ৫১ রানের জুটি গড়েন। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে প্যাভিলিয়নে ফিরেন রয়। প্রথম অনুশীলন ম্যাচে ১০৪ রান করা রয় এবার করেন ৩২। আরেক ওপেনার বেয়াস্টো থামেন ১৯ রানে ।

দলীয় ৫৩ রানের মধ্যে দুই ওপেনারের বিদায়ের পর মিনি ধস নামে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন-আপে। মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যানরা দ্রুত ফিরলে ১৩১ রানেই ষষ্ঠ উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারীরা। এতে দ্রুত গুটিয়ে যাবার শংকায় পড়ে ইংল্যান্ড। কিন্তু সেটি হতে দেননি ডান-হাতি ব্যাটসম্যান জো ডেনলি। ডান-হাতি পেস বোলার ক্রিস ওকসকে নিয়ে সপ্তম উইকেটে ৯৯ বলে ৯১ রান যোগ করেন ডেনলি।

৪২ বলে ৪০ রান করে থামেন ওকস। আর শেষ ওভারে আউট হন ডেনলি। ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ১০৩ বলে ৮৭ রান করেন ডেনিল। এতে শুরুর বিপর্যয়ে কাটিয়ে উঠে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৫৮ রানের লড়াকু সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁ-হাতি স্পিনার তাবরিজ শামসি ৩৮ রানে ৩ উইকেট নেন।

২৫৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে সপ্তম ওভারের শেষ বলে প্রথম উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৬ রান করে ফিরেন রেজা হেনড্রিকস। শুরুতে হেনড্রিকসকে হারালেও ভড়কে যাননি আরেক ওপেনার ডি কক ও তিন নম্বরে নামা তেম্বা বাভুমা। ইংল্যান্ডের বোলারদের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছেন তারা। দু’জনের ব্যাটিং নৈপুন্যে জয়ের ভিত পেয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় উইকেটে ১৬৯ বলে ১৭৩ রানের দুর্দান্ত একটি জুটি গড়েন ডি কক ও বাভুমা। এই জুটিতেই ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৫তম ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন ডি কক। তিন অংকে পা দিয়ে ১০৭ রানে আউট হওয়ার আগে ১১৩ বলের ইনিংসে ১১টি চার ও ১টি ছক্কা হাকান তিনি।

ক্যারিয়ারের তৃতীয় ওয়ানডেতে দ্বিতীয় সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়ে ব্যক্তিগত ৯৮ রানে থামতে হয় বাভুমাকে। ১০৩ বল মোকাবেলা করে ৫টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন প্রায় আড়াই বছর পর ওয়ানডে খেলতে নামা বাভুমা। ২০১৬ সালে অভিষেক ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। এরপর এক বছর পর দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলেছিলেন বাভুমা।

দলীয় ১৯৮ রানে ডি কক ও ২৩৪ রানে বাভুমার আউটের পর দক্ষিণ আফ্রিকার জয় নিশ্চিত করেন ভ্যান ডার ডুসেন ও জেজে স্মুটস। ডুসেন ৩৮ ও স্মুটস ৭ রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডি কক।

ডারবানে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ইংল্যান্ড -২৫৮/৮ (৫০ ওভার , রান রেট -৫.১৬)
ব্যাটিং:
ডেনলি -৮৭ (১০৩ বল )
ওকস -৪০ (৪২ বল )
জেসন রয় -৩২ (৩২ বল )
বোলিং:
শামসী -১০-০-৩৮-৩
স্মুটস -১০-০-৪৩-১

দক্ষিণ আফ্রিকা -২৫৯/৩ (৪৭.৪ ওভার ,রান রেট-৫.৪৩)
ব্যাটিং:
ডি কক -১০৭ (১১৩ বল )
বাভুমা -৯৮ (১০৩ বল )
ডুসেন -৩৮* (৪৫ বল )
বোলিং:
ওকস -৯-০-৩৬-১

টস: দক্ষিণ আফ্রিকা , ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত।
ফলাফল: দক্ষিণ আফ্রিকা ৭ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা )

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *