আকবর আলী ,ছবি : সংগৃহীত।

বোন হারানোর মানষিক যন্ত্রনা নিয়ে ইতিহাস গড়লেন আকবর

অনেকেরই হয়তো জানা নেই অপরাজিত ৪৩ রান করে বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ জাতীয় ক্রিকেট দলকে বিশ্বকাপের শিরোপা এনে দেয়া যুব টাইগার অধিনায়ক আকবর আলী তার বোনের মৃত্যুতে কাতর ছিলেন।

অনুর্ধ-১৯ বিশ্বকাপের সুচি নিয়ে আকবর যখন ব্যস্ততার মধ্যে সময় কাটাচ্ছিলেন তখন জমজ সন্তানের জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেন তার একমাত্র বোন। তবে ঘটনাটি গোপন রাখা হলেও ভিন্ন মাধ্যম থেকে জেনে যান আকবর।

ঘটনাটি জানতে পেরে বাংলাদেশ অধিনায়ক তার এক ভাইকে ফোন করে জানতে চান কেন তাকে এই মর্মান্তিক দু:সংবাদটি জানানো হয়নি। এর সঠিক কোন জবাব তারা দিতে পারেননি। পরে তিনি তার বাবা মোহাম্মদ মোস্তফাকে ফোন করে একই প্রশ্ন করেন। তিনি নিজের আবেগকে দমন করে ছেলেকে বলেন ক্রিকেটের প্রতি মনোযোগ দিতে।

এ যন্ত্রনাকে সঙ্গী করেই বাংলাদেশ দলকে গুরুত্বপুর্ন সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচের বৈতরনী পার করে দিয়েছেন আকবর। বোন হারানোর মানষিক যন্ত্রনাকে সঙ্গে নিয়েই তিনি বিশ্বকাপের ম্যাচে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। ওই যন্ত্রনা এতটুকু সময়ের জন্যও তাকে টলাতে পারেনি বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের পথ থেকে।

শিরোপা জয়ের পর আনন্দ ও বেদনার মিশ্র একটি প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে আকবরের জন্মস্থান রংপুরে। আকবরের বাবা মোহাম্মদ মোস্তফা বলেন,‘ পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের একদিন আগে আমরা আমাদের একমাত্র মেয়েকে হারিয়েছি। চার ছেলের বিপরীতে সেই ছিল আমাদের একমাত্র মেয়ে।

আকবর সবার ছোট হওয়ায় বোনের অত্যন্ত প্রিয়ভাজন ছিল। তার মৃত্যু সংবাদ আমরা আকবরকে দিতে চাইনি। কিন্তু কারো কাছ থেকে সে ওই খবর পেয়ে যায়।

পাকিস্তান ম্যাচের পর সে তার এক ভাইয়ের কাছে জানতে চায় কেন তাকে খবরটি দেয়া হয়নি। আমি তখন তার সঙ্গে কথা বলতে পারিনি।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *