ছবিঃভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া।

ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করতে চায় অস্ট্রেলিয়া

ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথমবারের মত সফরকারী ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করতে চায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যেই তিন ওয়ানডে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে অসিরা। ফলে ভারতকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দেয়ার সুযোগ এখন অসিদের সামনে। সিরিজ হারলেও, শেষ ম্যাচ জিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াতে মরিয়া ভারত। আগামীকাল ক্যানবেরাতে বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে শুরু হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

১৯৮৪ সাল থেকে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলে আসছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করতে পারেনি অসিরা। এবার ভারতকে হোয়াইটওয়াশের সুযোগ পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথমবারের মত ভারতকে হোয়াইটওয়াশের স্বাদ নিতে চায় দুর্দান্ত ফর্মে থাকা অস্ট্রেলিয়া।

সিরিজের প্রথম দু’ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং পারফরমেন্স প্রদর্শন করেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতীয় বোলারদের তুলোধুনো করে প্রথম দুই ওয়ানেডেতে যথাক্রমে ৩৭৪ ও ৩৮৯ রান করেছে অস্ট্রেলিয়া। দু’ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেন সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ।

প্রথম ওয়ানডেতে ১০৫ ও দ্বিতীয়টিতে ১০৪ রান করেন স্মিথ। প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরি করে ১১৪ রান করেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ব্যাট হাতে চমক দেখিয়েছেন হার্ড-হিটার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

কিছু দিন আগে শেষ হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) সুপার ফ্লপ ছিলেন ম্যাক্সওয়েল। ১১ ইনিংসে ১০৮ রান করেছেন তিনি। পুরো আসরে ৯টি বাউন্ডারি থাকলেও, ছক্কা কি, তা যেন ভুলেই গিয়েছিলেন ম্যাক্সওয়েল।

অথচ ভারতের বিপক্ষে দুই ওয়ানডেতে ম্যাক্সওয়েলের ছক্কা ৭টি। প্রথম ম্যাচে ১৯ বলে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৪৫ এবং দ্বিতীয়টিতে ২৯ বলে ৪টি করে ও ছক্কায় ৬৩ রান করেন ম্যাক্সওয়েল। স্মিথ-ফিঞ্চ ও ম্যাক্সওয়েলের সাথে ডেভিড ওয়ার্নার-মার্নাস লাবুশেনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ভারতের উপর রানের বোঝা চাপায় অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার ছুঁড়ে দেয়া রানের পাহাড় টপকাতে ব্যর্থ হয় ভারতের ব্যাটসম্যানরা। রানের চাপে দিশেহারা হয়ে দু’ম্যাচের কোনটিতেই বিন্দুমাত্র লড়াই করতে পারেনি কোহলি-ধাওয়ানরা। বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হন দলের সেরা ব্যাটসম্যানরা।

কোহলি-ধাওয়ান-রাহুল-হার্ডিকের হাফ-সেঞ্চুরি দলকে সিরিজ হার থেকে রক্ষা করতে পারেনি।

আর ভারতীয় বোলারদের খরুচে বোলিং দলের ব্যাটসম্যানদের জন্য লড়াইয়ে পথ কঠিন করে ফেলে। দুই পেসার মোহাম্মদ সামি ও জসপ্রিত বুমরাহ, পুরোপুরিই ব্যর্থ হয়েছেন। সামি ১৩২ রানে ৪ ও বুমরাহ ১৫২ রানে মাত্র ২ উইকেট নেন। স্পিনার যুজবেন্দ্রা চাহাল ১৬০ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট। দলের সেরা বোলারদের এমন পারফরমেন্স ভারতের সিরিজ ধরে রাখার মিশনে পানি ঢেলে দেয়।

তবে সিরিজের শেষ ম্যাচে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদি ভারতের ওপেনার শিখর ধাওয়ান। তিনি বলেন, ‘প্রথম দুই ম্যাচে আমাদের বোলাররা ভালো করতে পারিনি। টার্গেটগুলো বেশি বড় হয়ে গিয়েছিলো। তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে বোলারদের আরও ভালো করতে হবে। শেষ ম্যাচ জিততে পারলে আত্মবিশ্বাস ফিরে পাবে দল।’

অন্য দিকে সিরিজ জয়ের টার্গেট পূরণ হওয়ায়, এবার ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করতে চায় বলে জানালেন দলের অস্ট্রেলিয়া মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান লাবুশেন । তিনি বলেন, ‘আমরা যেভাবে খেলছি সেটাই অব্যাহত রাখবো। আক্রমনাত্মক ক্রিকেট খেলে প্রতিপক্ষকে চাপে রাখবো। জয়ের ধারাটা অব্যাহত রাখতে চাই, ভারতকে হোয়াইটওয়াশ করতে চায় দল।’

সিরিজের শেষ ম্যাচে ওপেনার ওয়ার্নারকে পাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় ম্যাচে ফিল্ডিংএর সময় কুঁচকিতে চোট পান তিনি। ফলে সাদা বলের সিরিজ থেকে ছিটকে পড়লেন ওয়ার্নার।

সিরিজটি বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ। এ পর্যন্ত ৫ ম্যাচে ৪ জয় ও ১ হারে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে এখন অস্ট্রেলিয়া।

ফলে দ্বিতীয়স্থানে নেমে গেল ইংল্যান্ড। ৬ ম্যাচে ৩টি করে জয়-হারে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে ইংল্যান্ড। ২ ম্যাচ খেলে, কোন জয় না পাওয়ায় এখনো পয়েন্টের খাতা খুলতে পারেনি ভারত।

ভারত স্কোয়াড : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), লোকেশ রাহুল (সহ-অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), শিখর ধাওয়ান, শুবমান গিল, শ্রেয়াস আইয়ার, মানিষ পান্ডিয়া, হার্দিক পান্ডিয়া, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, রবীন্দ্র জাদেজা, যুজবেন্দ্রা চাহাল, কুলদীপ যাদব, জসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ সামি, নবদীপ সাইনি ও শার্দুল ঠাকুর।

অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াড : অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), প্যাট কামিন্স, সিন অ্যাবট, অ্যাস্টন আগার, অ্যালেক্স ক্যারি, ক্যামেরুন গ্রিন, জশ হ্যাজেলউড, মইসেস হেনরিকস, মার্নাস লাবুশানে, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ড্যানিয়েল সামস, স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কুস স্টোয়িনিস, এন্ড্রু তাই, ম্যাথু ওয়েডে ও এডাম জাম্পা।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *