কেন উইলিয়ামসন , ছবিঃসংগৃহীত।

মরুদেশে আইপিএল হওয়ায় খুশী উইলিয়ামসন

এ বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে যাওয়ায়, আগামী সেপ্টেম্বরে শুরু হবে বিশ্ব ক্রিকেটে সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-২০ টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। করোনাভাইরাসের কারনে আইপিএলের ১৩তম আসর বসবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল হওয়াতে খুশী নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। 

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ

গেল ২৯ মার্চ আইপিএলের ১৩তম আসর শুরুর নির্ধারিত তারিখ ছিলো। কিন্তু মার্চে ভারতজুড়ে করোনার প্রার্দুভাব শুরু হওয়ায়, নির্ধারিত সময়ে আইপিএল শুরু করেনি কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে, কবে নাগাদ আইপিএল শুরু করবে সেটিও বুঝে উঠতে পারছিলো না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। কারন আইপিএল আয়োজন করার জন্য উপযুক্ত তারিখ পাচ্ছিলো না বিসিসিআই। তবে এ বছর অস্ট্রেলিয়ায় নির্ধারিত টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিল হওয়ায় আইপিএল আয়োজনের কথা জানায় বিসিসিআই।

তবে ভারতের করোনা পরিস্থিতি দিন-দিন অবনতি হওয়ায়, বিদেশের মাটিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই।

ভারতের বাইরে আইপিএল হলেও, খুশী নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক উইলিয়ামসন। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের উইলিয়ামসন বলেন, ‘মরুদেশে আইপিএল হলেও সমস্যা নেই। কারন আইপিএল সব সময়ই উত্তেজনাপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য একটি প্রতিযোগিতা।

সমর্থকদের উন্মাদনা টুর্নামেন্টকে আলাদা মাত্রায় পৌঁছে দেয়। কিন্তু একটি প্রতিযোগিতা আয়োজন করার জন্য অনেক প্রস্তুতির প্রয়োজন। সংযুক্ত আরব আমিরাত সেভাবেই প্রস্তুতি নিবে। আর এবার করোনাভাইরাসের কারনে আরও কড়াকড়িভাবেই আয়োজন করা হবে আসরটি। তবে যেভাবেই হোক না কেন, যেখানেই হোক না কেন, আইপিএল হচ্ছে, এতেই আমি খুশী।’

বিশ্বকাপ না হওয়াতে খারাপ লাগছে উইলিয়ামসনের। তবে করোনার পরিস্থিতির কারনে হচ্ছে না বলে নিজেকে সান্তনা দিয়েছেন তিনি। উইলিয়ামসন বলেন, ‘বিশ্বকাপে অনেক খেলোয়াড় অংশ নিয়ে থাকে। বিশ্বকাপ নিয়ে সবারই আলাদা স্বপ্ন থাকে। এবারের বিশ্বকাপ হচ্ছে না, এটি হতাশার। তবে এক বছর পর তো হবে। আর এবারের বিশ্বকাপ তো ইচ্ছা করে বাতিল করা হয়নি।

সকলেরই স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যাপার আছে। আশা করছি, বিশ্বকাপ যখন হবে, তখন আমরা সেটি নিশ্চিন্তে উপভোগ করতে পারবো।’

আইপিএলে ১৩তম আসরে নিউজিল্যান্ড থেকে উইলিয়ামসন ছাড়াও আরও পাঁচ খেলোয়াড় অংশ নিবেন। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে অলরাউন্ডার জিমি নিশাম, কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে পেসারলোকি ফার্গুসন, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে দুই পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান ও ট্রেন্ট বোল্ট এবং চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে খেলবেন স্পিন অলরাউন্ডার মিচেল স্যান্টনার।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *