ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল )

মরুর দেশে আইপিএল আয়োজনের অনুমতি পেল বোর্ড

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৩তম আসর আয়োজনের সকল পরিকল্পান শেষ করে রেখেছিলো ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) ও আইপিএল কর্তৃপক্ষ। তবে সরকারের চূড়ান্ত অনুমতির অপেক্ষায় ছিলো বিসিসিআই ও আইপিএল কর্তৃপক্ষ। অবশেষে সেই অনুমতিও মিলে গেল।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ

মরুরদেশে আইপিএল আয়োজনের জন্য সরকারের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক অনুমতি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আইপিএল চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল।

আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সিদ্ধানত অনুযায়ী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকেই শুরু হবে করোনার কারনে প্রায় ছয় মাস পিছিয়ে যাওয়া আইপিএল। এবারের আইপিএলের পর্দা নামবে ১০ নভেম্বর। মরুর শহরের তিন ভেন্যু- দুবাই, আবু ধাবি ও শারজায় হবে আইপিএলের ৫৬টি ম্যাচ।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে প্যাটেল বলেন, ‘আমাদের কাছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও বিদেশমন্ত্রক থেকে লিখিত ছাড়পত্র এসে গেছে। গত সপ্তাহে মৌখিক নিশ্চয়তা পাওয়ার পর থেকেই এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ডকে প্রস্তুতি শুরুর অনুরোধ করা হয়েছিলো। এখন লিখিত ছাড়পত্র পাওয়ার পরে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের ও অন্যান্যদের সবকিছু জানিয়ে দেয়া হয়েছে।’

এ নিয়ে তৃতীয়বারের মত দেশের বাইরে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএল। জাতীয় নির্বাচনের জন্য ২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় ও ২০১৪ সালে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হয় আইপিএল।

চীনের মোবাইল সংস্থা ভিভো কোম্পানি আইপিএলের স্পন্সর ছিলো। তাদের সাথে চুক্তি শেষ করে দেয়ায়, নতুন স্পন্সরের খোঁজে আইপিএল কর্তৃপক্ষ।

গেল মার্চ থেকে শুরু হবার কথা ছিলো আইপিএলের। কিন্তু করোনার কারনে নির্ধারিত সময়ে শুরু হতে পারেনি আইপিএল।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *