এসসিএ স্টেডিয়াম রাজকোট, ছবি: সংগৃহীত।

রাজকোটের পিচ টাইগারদের পক্ষে নাও থাকতে পারে

রাজকোট, ৬ নভেম্বর ২০১৯  : দিল্লিতে বাংলাদেশ এমন একটি ক্ষেত্র পেয়েছিল, যেখানে স্বাগতিক ভারতীয়দের তুলনায় নিজেদের সামর্থ্যকে বেশি কাজে লাগাতে পেরেছে তারা। স্লো পিচের সুবিধা পরিপূর্ণভাবে কাজে লাগিয়ে তারা স্বাগতিক ভারতকে ৭ উইকেটে পরাজিত করেছিল। তবে রাজকোটে ওই সুবিধা না পাবারই সম্ভাবনা টাইগারদের। এমনকি বৃষ্টির কবলে পড়লে মাঠটি আরো বেশি দ্রুতগতির হয়ে উঠে।

আর এমন পরিস্থিতির সঙ্গে পুরোপুরি অপরিচিত বাংলাদেশ। টি-২০ ফরমেটে এই প্রথম ভারতকে হারিয়েছে তারা। আর অভিজ্ঞ সাকিব ও তামিম ইকবালকে ছাড়াই নতুন এই ইতিহাস রচনা করেছে টাইগাররা। এমনকি ওই একাদশে ছিল না কোন বাঁহাতি স্পিনার।

বাংলাদেশ সাধারণত উইনিং কম্বিনেশন ভাংতে চায় না। রাজকোটেও তারা এমনটাই থাকার ইঙ্গিত দিয়েছে। কোন পরিবর্তন আনার পক্ষে নয় টাইগাররা। তবে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বলেছেন, তারা যদি কাউকে উইকেটে বেশি কার্যকর মনে করেন তাহলে উইনিং কম্বিনেশন ভাঙ্গতে মোটেই দ্বিধা করবে না।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘এটি নির্ভর করছে কন্ডিশনের উপর। যদি কম্বিনেশন পরিবর্তনের প্রয়োজন হয় তাহলে করব। এখন দেখা যাক কি হয়।’ তিনি বলেন, তারা ওপেনিং ম্যাচে জয়লাভ করেছে। এর একটি গুরুত্ব রয়েছে। তবে এখানো কোন কিছুরই নিশ্চয়তা নেই।

রিয়াদ বলেন, ‘আমি আগেই বলেছি, প্রথম ম্যাচে জয় পাবার পর সেটি আমাদের মধ্যে বাড়তি আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে। আমরা কেউ অলস বসে নেই। সবাই কালকের ম্যাচের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। সেরাটা দেয়ার জন্য অনুশীলনে সবাই কঠোর পরিশ্রম করছে। কাল প্রত্যাশিত ফলাফল পাবার জন্য আমরা দলগতভাবে সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করব।’

বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই বুঝতে হবে যে তারা আরো শক্তি সঞ্চার করে প্রত্যাবর্তন করবে। আমি বিশ্বাস করি টি-২০ ম্যাচে আপনি যদি সঠিকভাবে উইকেট পর্যবেক্ষণ করতে পারেন, এর আলোকে নিজ দলের ফিল্ডিং সাজাতে পারেন, তাহলে ভাল করার সম্ভাবনা থাকে। টি-২০ হচ্ছে এমন একটি খেলা, যেখানে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্তটি নিতে হবে। এ জন্য আপনার গেম পরিকল্পনা থাকতে হবে এবং সেটিকে সঠিকভাবে পালনের চেষ্টা করতে হবে।’

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *