ভারত ক্রিকেট দল ,ছবিঃসংগৃহীত।

রোহিত-রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে সিরিজে সমতা আনলো ভারত

বিশাখাপত্তম, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯  : দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরির পর বাঁ-হাতি স্পিনার কুলদীপ যাদবের হ্যাট্টিকে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১০৭ রানের বড় ব্যবধানে হারালো ভারত। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা আনলো বিরাট কোহলির দল।

বিশাখাপত্তমে টস জিতে প্রথমে বোলিং করতে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যাট হাতে ভারতকে অসাধারন সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার রোহিত ও রাহুল। ২২২ বল মোকাবেলা করে ২২৭ রানের জুটি গড়েন তারা। ভারতের পক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান এটি।

দলকে অসাধারন সূচনা এনে দেয়ার পাশাপাশি রোহিত-রাহুল দুজনই সেঞ্চুরির স্বাদ নেন। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে রোহিত ২৮তম ও রাহুল তৃতীয় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। রোহিত ১৩৮ বলে ১৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১৫৯ এবং রাহুল ১০৪ বলে ৮টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১০২ রান করেন। তাদের বিদায়ের পর ভারতকে ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৮৭ রানের বিশাল সংগ্রহ এনে দিয়েছেন শ্রেয়াস আইয়ার ও ঋসভ পান্থ। আইয়ার ৩২ বলে ৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৫৩ রান করেন। পান্থের ব্যাট থেকে আসে ১৬ বলে ৩৯ রান। তার ইনিংসেও ৩টি চার ও ৪টি ছক্কা ছিলো। ওয়েস্ট ইন্ডিজের শেল্ডন কটরেল ৮৩ রানে ২ উইকেট নেন।

জবাবে ১১ ওভারে ৬১ রানের সূচনা পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর ৮৬ রানের মধ্যে ৩ উইকেটের পতনও ঘটে তাদের। পরবর্তীতে চতুর্থ উইকেটে ১০৬ রানের জুটি গড়েন শাই হোপ ও নিকোলাস পুরান। ৭৫ রান করে ফিরেন পুরান। পুরানকে শিকারের পরের বলেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডকেও শিকার করেন ভারতের পেসার মোহাম্মদ সামি।

এরপর ৩৩তম ওভারের শেষ তিন বলে হোপ-জেসন হোল্ডার-আলজারি জোসেফকে শিকার করে হ্যাট্টিক পূর্ণ করেন ভারতের স্পিনার কুলদীপ। ওয়ানডে ইতিহাসে ৪৯ ও ভারতের পক্ষে পঞ্চম হ্যাট্টিক করেন কুলদীপ। ভারতের হয়ে দ্বিতীয় হ্যাট্টিক কুলদীপের। ২০১৭ সালে কলকাতায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম হ্যাট্টিক করেছিলেন কুলদীপ।

পরবর্তীতে ২৮০ রানে গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন হোপ। ভারতের কুলদীপ ৫২ রানে ও সামি ৩৯ রানে ৩টি করে উইকেট নেন।

কটকে আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *