নিউজিলান্ড দল , ছবি : সংগৃহীত।

শ্রীলংকার বিপক্ষে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করছে নিউজিল্যান্ড

লন্ডন, ৩১ মে, ২০১৯: শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। ইংল্যান্ডের মাটিতে চলমান দ্বাদশ ক্রিকেট বিশ্বকাপের তৃতীয় ও দিনের প্রথম ম্যাচে শনিবার কার্ডিফে বাংলাদেশ সময় সাড়ে তিনটায় শুরু হবে নিউজিল্যান্ড-শ্রীলংকার মধ্যকার ম্যাচটি।

ছয়বার সেমিফাইনালের পর ব্ল্যাকক্যাপসরা চার বছর আগে প্রথমবারের মত টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। তবে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিযার কাছে পরাজিত হয়ে আর শিরোপা স্পর্শ করা হয়নি তাদের।

তারকা ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন ম্যাককালামের পরিবর্তে কেন উইলিয়ামসনকে অধিনায়ক করা হয়। তবে দলের মূল শক্তি প্রায় ২০১৫ স্কোয়াডের কাছাকাছিই রয়ে গেছে।

গত বিশ্বকাপের পর বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে নিউজিল্যান্ড দলের উন্নতি হয়েছে, তারা কিছু দিনের জন্য র‌্যাংকিংয়ের দ্বিতীয় স্থান দখল করেছিল। তবে নিজ মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড এবং ভারতের কাছে পরাজিতও হয়েছে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হারার আগে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ভারতকে হারিয়েছে।

উইলিয়ামসনের নেতৃত্বাধীন দলটি প্রথমবারের মত বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে পারে বলে আশাবাদী নিউজিল্যান্ডের সাবেক পেসার জেমস ফ্রাংকলিন।

৫০ ওভার টুর্নামেন্টের দ্বাদশ আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফ্রাংকলিন বলেন,‘নিউজিল্যান্ড খুব ভাল অবস্থানে আছে। কেউই তাদের নিয়ে খুব বেশি কথা বলেনা।’

‘আমরা সব সময়ই আন্ডারডগ এবং এটা আমাদের ভাল মানিয়ে গেছে.. আগামী কয়েক সপ্তাহ আমরা ফর্মে দেখাতে পারলে নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপ না জেতার কোন কারণ নেই।’

সাম্প্রতিক বছরগুলো ওয়ানডে ক্রিকেটে দুর্দান্ত ফর্ম দেখিয়ে চলেছেন ব্যাটসম্যান রস টেইলর। ২০১৭ সালে তার ব্যাটিং গড় ছিল ৬০’র ওপড়ে এবং গত বছর ছিল ৯০’র বেশি।

এছাড়া নিউজিল্যান্ড দলে ব্যাটিং লাইন আপে অপর দুই ড্যাঞ্জারম্যান হলেন র‌্যাংকিংয়ের দ্বাদশ স্থানে থাকা উইলিয়ামসন ও দশ নম্বরে থাকা মার্টিন গাপটিল।

কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও টিম সাউদিকে নিয়ে দলের পেস আক্রমণের নেতৃত্ব দেবেন ট্রেন্ট বোল্ট। যথার্থ ভিন্নতার মাধ্যমে স্পিন বিভাগ সামলাবেন ইশ সোধি ও মিচেল স্যান্টনার।

-স্পস্ট ফেবারিট-
বোল্ট বলেন,‘টি-২০ ক্রিকেট যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে শেষ পর্যন্ত প্রতি ওভারে ১২ রানও হতে পারে এবং ওয়ানডে ক্রিকেট সংক্ষিপ্ত ভার্সনেরই বর্ধিত অংশ হতে যাচ্ছে বলে আমি মনে করি।’

তিনি আরো বলেন,‘১২ রানের ওভারকে যদি আপনি ১৭/১৮ রানে নিতে পারেন তবে শেষ পর্যন্ত এটা বড় পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। এ বিষয়টি স্পস্ট থাকলে আমরা টুর্নামেন্টের বহুদূর যেতে পারি।’

ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের নবম স্থানে থাকা ১৯৯৬ বিশ্বকাপ জয়ী শ্রীলংকার বিপক্ষে স্পস্টতই ফেবারিট হিসেবে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে কিউইরা।

নিজেদের শেষ নয় ম্যাচের মধ্যে আটটিতে পরাজিত হওয়া শ্রীলংকা দলের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছে চার বছর পর ওয়ানডে ক্রিকেটে ফেরা দিমুথ করুনারতেœকে।

কিন্তু বিশ্বকাপে শ্রীলংকার রেকর্ড বেশ ভাল। দলটি একবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, রানার্স আপ হয়েছে দুই বার এবং সেমিফাইনাল খেলেছে একবার।

দলটির সাবেক অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনে বলেন,‘শ্রীলংকা সব সময়ই বিশ্বকাপে ভাল করার একটা পথ পেয়ে যায়। হ্যাঁ, দলের সেট আপে কিছু পরিবর্তন ঘটেছে। অধিনায়ক নিজেই কয়েক বছর যাবত ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেননি। তবে সে একজন চমৎকার খেলোয়াড়।’

তিনি আরো বলেন,‘ তারা দলে কিছুটা স্থিতিশীলতা আনার চেস্টা করছে। আপনারা দলে এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, কুসল পেরেরা, কুসল মেন্ডিজের মত কিছু চিত্তাকর্ষক কেলোয়াড় দেখবেন। এই দলে তারা সকলেই ম্যাচ উইনার।

‘চার অথবা পাঁচটি ম্যাচে জয়ী হতে পারলে আপনি সেমি ফাইনালে খেলার সুযোগ পেতে পারেন । শ্রীলংকা এ বিকল্পটাই চাইবে এবং একই সাথে প্রতিটি ম্যাচেই এটা বাস্তবায়নের চেস্টা করবে। আমি এখনো মনে করি তাদের খুব ভাল একটা সম্ভাবনা আছে।’
বাসস/এএফপি/১৭২০/স্বব

Social Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *